বাংলাদেশে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

তারেক রহমান ছবির কপিরাইট focusbangla
Image caption তারেক রহমান

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার তেজগাঁও থানায় দায়ের করা একটি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিম আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারি এ আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন তারেক রহমানের আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

তারেক রহমান ছাড়া রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় আরো তিনজন অভিযুক্ত রয়েছেন। এদের মধ্যে একুশে টেলিভিশনের সাংবাদিক কনক সরওয়ার ও মাহাথির ফারুকি খানের বিরুদ্ধেও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। অন্য আসামী একুশে টেলিভিশনের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সালাম কারাগারে থাকায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়নি বলে জানিয়েছেন মি. তালুকদার।

আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার আরও বলেছেন, এই প্রথম কোনও রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলায় তারেক রহমানের বিচারের জন্য অপরাধ আমলে নেয়া হলো এবং এ ধরনের একটি মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হলো।

এই চারজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ এনে মামলা করা হয়েছিল গত বছরের জানুয়ারি মাসে।

অভিযোগে বলা হয়েছে - 'তারেক রহমান ও আবদুস সালাম যোগসাজশ করে 'মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন, উদ্দেশ্যমূলক ও বিভ্রান্তিকর তথ্যাদি প্রচার করেছে যা বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকিস্বরূপ'।

লন্ডন থেকে দেয়া তারেক রহমানের কিছু বক্তব্য বাংলাদেশে একুশে টেলিভিশনের মাধ্যমে প্রচারিত হলে তা নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক ও উত্তেজনাও সৃষ্টি হয় তখন।

এরপর তারেক রহমানসহ একুশে টেলিভিশনের এই কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছিল।

সে অভিযোগপত্র আমলে নিয়েই বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

সম্পর্কিত বিষয়