বিবিসি বাংলার ৭৫ বছর পূর্তি আজ

বিবিসি বাংলা ৭৫ বছর ধরে শ্রোতাদের সংবাদের চাহিদা পূরণ করে আসছে
ছবির ক্যাপশান,

বিবিসি বাংলা ৭৫ বছর ধরে শ্রোতাদের সংবাদের চাহিদা পূরণ করে আসছে

১৯৪১ সালের ১১ই অক্টোবর বাংলায় ১৫ মিনিটের সাপ্তাহিক সম্প্রচার শুরুর মাধ্যমে যাত্রা হয়েছিল যে বিবিসি বাংলার, কালের পরিক্রমায় আজই তার হীরক জয়ন্তী হচ্ছে।

জাতীয় আন্তর্জাতিক জীবনে বহু ইতিহাসের স্বাক্ষী হয়ে থাকা বিবিসি বাংলা ৭৫ বছর ধরে সমসাময়িক নানা ঘটনার পক্ষপাতহীন বিশ্লেষণের মাধ্যমে শ্রোতাদের সংবাদের চাহিদা পূরণ করে আসছে।

আর সে কারণে বিবিসি বাংলার শ্রোতার সংখ্যাও বিপুল। তাদেরই একজন খুলনার মুনীর আহমেদ, যিনি গত ৫০ বছর ধরে একনিষ্ঠভাবে বিবিসি শুনে যাচ্ছেন।

বিবিসি বাংলার সাইয়েদা আক্তারকে তিনি বলছিলেন, ১৯৬৬ সালে ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্র থাকাকালে বিবিসি শোনা শুরু করেন। সেসময় এক অনুষ্ঠানে শ্রোতাদের ডাকটিকেট পাঠানোর এক আয়োজনের মাধ্যমে বিবিসি তার প্রানের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যায় বলে জানান মি. আহমেদ।

মূলত বিজ্ঞানভিত্তিক অনুষ্ঠানগুলো তাকে আকর্ষণ করলেও, নাটক এবং সাক্ষাৎকারভিত্তিক বিভিন্ন ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ভালো লাগত বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া প্রবাসীদের সাক্ষাৎকারভিত্তিক অনুষ্ঠান 'সাগরপাড়ের বানী' এবং শ্রোতাদের চিঠিপত্রের উত্তর দেবার 'প্রীতিভাজনেষু' অনুষ্ঠানের সিগনেচার টিউন মি. আহমেদ এবং তার আরো অনেক বন্ধুকে আকর্ষণ করত।

এরপর সময়ের বিবর্তনে অনুষ্ঠানসূচীতে পরিবর্তন যখন আসে, সংবাদভিত্তিক অনুষ্ঠানের সময় যখন বাড়তে শুরু করে, তখনও সমানভাবে তিনি বিবিসি বাংলার অনুষ্ঠান উপভোগ করেছেন বলে উল্লেখ করেন।

বিবিসি বাংলার ৭৫ বছর পূর্তিতে মি. আহমেদের প্রত্যাশা সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে টেলিভিশন ও অনলাইনে বিবিসি বাংলার বিস্তৃতি ঘটলেও, রেডিও অনুষ্ঠান যেন বন্ধ না হয়, সে দিকে দৃষ্টি দেবার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।