পুরস্কার পাওয়া বিএমডব্লিউ গাড়ী ফেরত দিচ্ছেন ভারতের অলিম্পিয়ান দীপা

ভারত, অলিম্পিকস
Image caption দীপা কর্মকার জানান, তার এলাকায় কোনও সার্ভিসিং সেন্টার না থাকায় ফেরত দিতে হচ্ছে বিএমডব্লিউ গাড়ীটি।

ভারতের আগরতলার মেয়ে দীপা কর্মকার। তাকে বলা হচ্ছে অলিম্পিক জিমন্যাস্টিকসে ভারতের এ যাবত কালের মধ্যে সেরা।

অলিম্পিক থেকে ফেরার পর পুরস্কার হিসেবে পেয়েছিলেন ৪৯ লাখ টাকা দামের বিএমডব্লিউ গাড়িটি। আর ভারতীয় ক্রিকেট তারকা সাচিন তেন্ডুলকারেরর হাত থেকে পেয়েছিলেন দামী ওই পুরস্কারটি। কিন্তু বিড়ম্বনায় পড়ে এবার শেষ পর্যন্ত তা ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দীপা।

অলিম্পিকসে পদক পাওয়ার খুব কাছে পৌঁছে গিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি ত্রিপুরার মেয়ে দীপার। তবুও রিও অলিম্পিকসে যারা পদক পেয়েছেন অথবা পাননি, সবাইকেই বিএমডব্লিউ গাড়ি উপহার দিয়েছিল হায়দ্রাবাদ ব্যাডমিন্টন এসোসিয়েশন। ওই এসোসিয়েশনেরই সদস্য - পি ভি সিন্ধু মেয়েদের ব্যাডমিন্টনে রৌপ্য পদক জয় করেন।

দীপা বলছেন কেন তাকে গাড়িটি ফেরত দিতে হচ্ছে?

"একটা কাঁচ ভেঙ্গে গেলে বা টায়ার পাংচার হয়ে গেলেও গাড়িটা নিয়ে যেতে হবে কলকাতায়। আগরতলা কেন আসামের রাজধানী গুয়াহাটিতেও বিএমডব্লুর কোনও সার্ভিস সেন্টার নেই" বিবিসি-কে বলছিলেন দীপা।

Image caption একদর স্কুল শিক্ষার্থীর সাথে দীপা কর্মকার

মিজ. কর্মকার পরিবার এবং কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, গাড়িটি তাঁরা ফেরত দিয়ে দেবেন। পরিবর্তে টাকা নিয়ে নেওয়ার ব্যাপারেও বিএম ডব্লিউর সঙ্গে কথা হয়েছে।

অবশ্য প্রথমে ভেবেছিলেন বিএমডব্লিউ বদলে কোনও ছোট গাড়ি যদি পাওয়া যেত! কিন্তু পরে সে ভাবনাটি বাদ দেন। দীপা বলছিলেন, "আমি অবশ্য গাড়ি কেন, স্কুটিও চালাতে জানি না। যদি অ্যাকসিডেন্ট করি, তাহলে তো আমার জিমন্যাস্টিকস শেষ হয়ে যাবে" "

আগরতলায় একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে দীপা রিও অলিম্পিকসে সারা পৃথিবীর নজর কেড়েছিলেন তাঁর প্রদুনোভা ভল্টের জন্য।

জিমন্যাস্টিকসে দীপার পারফর্ম্যান্সই এখনও পর্যন্ত ভারতের সেরা।

অলিম্পিকস থেকে ফেরার পরে কিছুদিন বিশ্রাম আর অনেক সংবর্ধনার শেষে ইতোমধ্যেই আবারও প্র্যাকটিস শুরু করে দিয়েছেন দীপা।