মসুলের যুদ্ধে লড়াই করছে শিয়া মিলিশিয়ারাও

ইরাক , মসুল
ছবির ক্যাপশান,

মসুলের দিকে অগ্রাভিযানে ইরাকি সেনারা

ইরাকের একটি শিয়া মিলিশিয়া গোষ্ঠী বলছে তারা মসুলে ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে অভিযানে অংশ নিচ্ছে।

শিয়া-প্রধান পপুলার মোবিলাইজেশন ফোর্সএর সদস্যরা বলছে, তারা মসুল শহরের ৬০ কিলোমিটার পশ্চিমের তাল আফার শহরের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

এই ব্রিগেডের লক্ষ্য হচ্ছে সিরিয়া থেকে মসুলে ইসলামিক স্টেটের রসদপত্র সরবরাহের একটি পথ বন্ধ করে দেয়া।

এই প্রথম আইএসের বিরুদ্ধে ইরাকি সরকারি বাহিনীর কোন অভিযানে শিয়া মিলিশিয়ারা কোন ভুমিকা রাখছে। এই অভিযানে শিয়াদের অংশগ্রহণ একটি বিতর্কিত বিষয়।

ছবির ক্যাপশান,

মসুলে যুদ্ধের কারণে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালানো একটি ইরাকি পরিবার

কারণ মসুল একটি সুন্নি-সংখ্যাগরিষ্ঠ শহর এবং ইরাকী প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-আবাদি আগেই অঙ্গীকার করেছেন যে শিয়া যোদ্ধারা ওই শহরে ঢুকবে না।

মসুল পুনর্দখলের লড়াইয়ে শিয়া মিলিশিয়াদের জড়িত হলে জাতিগত সংঘাত শুরু হবার আশংকা করেছেন অনেকেই।

এর বিরোধিতা করে আসছে সুন্নি আরব রাজনীতিবিদরা এবং ইরাকি কুর্দীরাও। এছাড়া তুরস্কও এর বিরোধিতা করে আসছে।

ছবির ক্যাপশান,

মসুলের পথে একটি ফাঁড়িতে টহলরত একজন ইরাকি সেনা

ইরাকের ভেতরে এখন তুরস্কের সেনাও মোতায়েন আছে।

এর আগে মার্কিন নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন বলছে, তারা তাদের বিজিত অবস্থানগুলো সংহত করার স্বার্থে অভিযানে সাময়িক বিরতি দিয়েছে।

জাতিসংঘ বলেছে, তাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য আছে যে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী মানব-ঢাল হিসেবে ব্যবহারের জন্য মসুলের আশপাশ থেকে হাজার হাজার লোককে অপহরণ করেছে।