আপাতত বন্ধ হচ্ছে না ভারতীয় চ্যানেল এনডিটিভি

ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় একদিনের জন্যে এনডিটিভি ইন্ডিয়া বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে
ছবির ক্যাপশান,

ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় একদিনের জন্যে এনডিটিভি ইন্ডিয়া বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে

ভারতের হিন্দী সংবাদ চ্যানেল এনডিটিভি ইন্ডিয়া-কে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসাবে একদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়ার যে নির্দেশ সে দেশের সরকার দিয়েছিল, তা আপাতত মুলতুবি করা হয়েছে।

একই সঙ্গে ওই নির্দেশের বিরুদ্ধে ভারতের সুপ্রিম কোর্টে এনডিটিভি-র দায়ের করা একটি আবেদনেরও আজ মঙ্গলবার শুনানী হওয়ার কথা রয়েছে।

এবছর জানুয়ারী মাসে পাঠানকোটের বিমান ঘাঁটিতে জঙ্গি হামলার প্রতিবেদনে জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে, এমন কিছু তথ্য প্রকাশ করেছিল এনডিটিভি - এই অভিযোগে আজ মধ্যরাত থেকে ২৪ ঘন্টা চ্যানেলটির সম্প্রচার বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় জানিয়েছে এনডিটিভি কর্তৃপক্ষের আবেদনের ভিত্তিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের প্রাথমিক নোটিশের জবাবে এনডিটিভি যে বক্তব্য পেশ করেছিল, তা ভাল করে খতিয়ে দেখা হয়নি বলে চ্যানেলটি জানিয়েছে।

এনডিটিভি আগেই বলেছিল যে ওই প্রতিবেদনে তারা এমন কোনও তথ্য দেয়নি যা অন্য চ্যানেলগুলোতে দেখানো হয়নি। প্রতিবেদন সম্প্রচারের দিন সরকারের এক মুখপাত্রই ওইসব তথ্য সব সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছিলেন।

ছবির ক্যাপশান,

পাঠানকোটের ঘটনার সময় এনডিটিভি'র কাভারেজ নিয়েই টেলিভিশন চ্যানেলটির বিরুদ্ধে অভিযোগ

সোমবার এই বিষয়টি নিয়ে যখন দিল্লি সহ বিভিন্ন শহরের প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক সংগঠনগুলো আবারও সরব হয়েছিল, তখনই এনডিটিভি-র প্রধান প্রণয় রায় দেখা করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডুর সঙ্গে।

সাংবাদিক সংগঠনগুলোর বিক্ষোভে এনডিটিভি'র শীর্ষ কর্মকর্তারাও হাজির হয়েছিলেন।

অন্যদিকে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, একদিনের জন্য এনডিটিভি বন্ধ করা নিয়ে দিল্লিতে এদিন দিনভর তৎপরতা তুঙ্গে ছিল।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধীন যে আন্ত:মন্ত্রণালয় কমিটি ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, সেখানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীন নিরাপত্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত যে যুগ্ম সচিবের থাকার কথা, তাঁর সঙ্গে আলোচনা না করেই এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়ে দেন।

পরে যদিও ওই মন্ত্রণালয় জানায় যে তাদের এক সহ-সচিব ছিলেন সেই বৈঠকে।

এনডিটিভি-কে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই ভারতের নানা মহল থেকে চাপ যে তৈরী হচ্ছিল সরকারের ওপরে, সেটা আঁচ করা যাচ্ছিল।

তারপরে সুপ্রিম কোর্টের শুনানী এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য সামনে আসার পরে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে যাওয়ার পটভূমিতেই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা মুলতুবি করে দেয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়।