একশোরো বেশি নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন যে পুরুষ

এইচআইভি আক্রান্ত এরিক এনিভা

ছবির উৎস, AFP

ছবির ক্যাপশান,

এইচআইভি আক্রান্ত এরিক এনিভা

মালাউয়িতে এরিক এনিভা নামে একজন পুরুষের বিরুদ্ধে মামলা চলছে যিনি একশো চারজন নারীর সঙ্গে তাঁর যৌন সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন।

ওই ব্যক্তি বিবিসির এক সাংবাদিককে বলেছিলেন 'দীক্ষা গ্রহণের' এক সামাজিক আচরণবিধি পালনের জন্য তিনি একশোরো বেশি কিশোরীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে গিয়েছিলেন।

তাঁর বিরুদ্ধে মামলার রায় এ সপ্তাহেই আসার কথা রয়েছে।

তবে মালাউয়ির নাগরিকদের অনেকের মতে পুরো সম্প্রদায়ের মধ্যে যেহেতু এ ধরনের কার্যক্রম প্রচলিত আছে তাহলে কেন একজনকেই বিচারের আওতায় আনা হবে।

জুলাই মাসে এক প্রেসিডেন্সিয়াল আদেশে এরিক এনিভাকে গ্রেফতার করা হয়।

একজন এইচআইভি-পজিটিভ রোগী হওয়া সত্ত্বেও সেটি লুকিয়ে, ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী কিশোরীদের সঙ্গে অরক্ষিত যৌন সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছিলেন মি: এনিভা। আর এরপরেই তাকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনা হয়।

মি: এনিভা বলেছেন, সেসব কিশোরীর আত্মীয়রাই তাকে ভাড়া করে নিয়ে গিয়েছিল যৌন সম্পর্কিত দীক্ষা গ্রহণ অনুষ্ঠানের অংশ হওয়ার জন্য।

তাদের সমাজে সেই অনুষ্ঠানের অর্থ হলো-কিশোরীর শৈশবে যেসব ধুলোময়লা রয়েছে তা নাড়িয়ে দেবে এই রীতি এবং এই 'যৌন দীক্ষা' গ্রহণের কারণে কিশোরীটি শৈশবকাল পেরিয়ে সাবালিকায় রূপ নিতে পারবে।

ছবির উৎস, AFP

ছবির ক্যাপশান,

অগাস্ট মাসে কোর্টের সামনে এরিক এনিভা