ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে কিডনি দান করতে চান বহু মানুষ

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ

ছবির উৎস, AP

ছবির ক্যাপশান,

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ

ভারতের অসুস্থ পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে কিডনি দান করতে চান বহু মানুষ। সুষমা স্বরাজ টুইট করেছিলেন যে তাঁর একটি কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হতে পারে। এর পর বহু মানুষ টুইটারে তাঁকে কিডনি দেয়ার প্রস্তাব দিচ্ছেন।

৬৪ বছর বয়সী সুষমা স্বরাজ বহু বছর ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছেন। এমাসের শুরুতে তাঁকে দিল্লীর এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ভারতে নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভায় সবচেয়ে প্রভাবশালী মন্ত্রীদের একজন তিনি।

গত মঙ্গলবার সুষমা স্বরাজ প্রথম এক টুইটার বার্তায় জানান যে একটি কিডনি বিকল হওয়ার পর তার ডায়ালাইসিস চলছে।

এরপর থেকেই বহু মানুষ তাকে টুইটারে কিডনি দান করার প্রস্তাব দিচ্ছেন।

ছবির উৎস, Twitter

ছবির ক্যাপশান,

.

ছবির উৎস, Twitter

ছবির ক্যাপশান,

.

একজন মানুষের দুটি কিডনি থাকে। তবে যে কোন সুস্থ মানুষ তার একটি কিডনি দান করে অপর কিডনির ওপর নির্ভর করেই বেঁচে থাকতে পারে।

নিখিল ডাদিচ নামে একজন সুষমা স্বরাজকে টুইটারে লিখেছেন, "ম্যাম, আমপানি চাইলে আমার কিডনি দান করতে রাজী আছি। আপনার মতো একজন মানুষের সেবা জাতির প্রয়োজন।"

জম্মুর বাসিন্দা ২৪ বছর বয়সী খেমরাজ শর্মা জানিয়েছেন, "তিনি একজন সুস্থ সবল মানুষ এবং সুষমা স্বরাজকে তিনি তার একটি কিডনি দান করতে চান।"

সুষমা স্বরাজ টুইটারে এক বার্তায় যারা তাঁকে কিডনি দেয়ার প্রস্তাব করেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

তিনি লিখেছেন, "কিভাবে আপনাদেরকে আমার কৃতজ্ঞতা জানাবো তার ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না।"