ছবিতে এক বিপ্লবীর জীবন: ফিদেল কাস্ত্রো

নব্বই বছরের দীর্ঘ জীবনে কিউবার বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ত্রো ১০ জন আমেরিকান প্রেসিডেন্টের আসা-যাওয়া দেখেছেন। তার জীবনের বিভিন্ন পর্বের কিছু ছবি।

ছবির ক্যাপশান,

তরুণ বয়েসে ফিদেল কাস্ত্রো। প্রথমদিকে তার লক্ষ্য ছিল আইনজীবী হবার, সেজন্য তিনি আইন পড়েছিলেন

ছবির ক্যাপশান,

বিপ্লবের চেষ্টার অংশ হিসেবে ১৯৫৩ সালে এক সেনাছাউনিতে আক্রমলের অভিযোগে কাস্ত্রো গ্রেফতার হন।

ছবির ক্যাপশান,

কিউবার শাসক ফুলহেনসিও বাতিস্তাকে উৎখাত করে ক্ষমতায় আসেন কাস্ত্রো

ছবির ক্যাপশান,

ফিদেল কাস্ত্রো আর দক্ষিণ আমেরিকার আরেক বিপ্লবী নেতা আর্নেস্তো চে গুয়েভারা

ছবির ক্যাপশান,

তিন বছর বিপ্লবী তৎপরতার পর ১৯৫৯ সালের প্রথম দিনে ক্ষমতা দখল করেন কাস্ত্রো

ছবির ক্যাপশান,

১৯৫৯ সালে হাভানায় ঢোকার পর কাস্ত্রো ও অন্য বিপ্লবী নেতারা

ছবির ক্যাপশান,

কাস্ত্রোর সাথে সোভিয়েত নেতা নিকিতা ক্রুশ্চেভ

ছবির ক্যাপশান,

কিউবান মিসাইল সংকট: মার্কিন প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডি কাস্ত্রোকে বললেন সোভিয়েত মিসাইল সরিয়ে নিতে

ছবির ক্যাপশান,

বে অব পিগসের অভিযানের সময় ট্যাংক থেকে লাফিয়ে নামছেন কাস্ত্রো

ছবির ক্যাপশান,

খেলাধুলার , বিশেষ করে বেসবলের ভক্ত ছিলেন ফিদেল কাস্ত্রো

ছবির ক্যাপশান,

কাস্ত্রোকে অনেকে স্বৈরশাসক বললেও তার বিপুল জনসমর্থনও ছিল

ছবির ক্যাপশান,

৯০এর দশকে অর্থনৈতিক সংকটের সময় বহু লোক এভাবেই নৌকায় করে কিউবা ছেড়ে আমেরিকায় পালিয়ে যায়

ছবির ক্যাপশান,

২০০৬ সালে ভাই রাউলের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দেন ফিদেল কাস্ত্রো। এর পর অসুস্থ ফিদেলকে খুব কমই প্রকাশ্যে দেখা গেছে। ছবিতে ভেনেজুয়েলার উগো চাভেজ এবং রাউলের সাথে ফিদেল কাস্ত্রো।