কাবা’র ছবি বিকৃত করার হোতা সন্দেহে নাসিরনগরে যুবক আটক

নাসিরনগর
ছবির ক্যাপশান,

নাসিরনগরে হিন্দুদের বহু বাড়িঘরে আগুন দেওয়া হয়

ফেসবুকে যে ছবি নিয়ে গতমাসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুদের ঘরবাড়ি, মন্দিরে হামলা হয়েছিল, তার প্রধান হোতা সন্দেহে স্থানীয় এক সাইবার ক্যাফের মালিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন জানিয়েছেন, জাহাঙ্গীর হোসেন নামে ঐ যুবক নাসিরনগরের হরিনাবের বাজারে একটি সাইবার ক্যাফের মালিক।

তাকে সোমবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পৌর এলাকা থেকে আটক করে আজ (মঙ্গলবার) আদালতে নেয়া হয়। আদালত পুলিশকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

রসরাজ নাম স্থানীয় এক হিন্দু যুবকের ফেসবুক পাতায় কাবা শরিফের ওপর হিন্দু দেবতা শিবের মূর্তির ছবি বসিয়ে তা আপলোড করার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর নাসিরনগরে হিন্দুদের ঘরবাড়ি, মন্দিরে ব্যাপক হামলার ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একজন কর্মকর্তা বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, জাহাঙ্গীর হোসেন রসরাজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে সেখানে ছবিটি আপলোড করেছিল বলে তারা সন্দেহ করছেন।

ছবির ক্যাপশান,

নাসিরনগরে ১৫টি মন্দিরে আগুন দেওয়া হয়

পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি শাখাওয়াত হোসেন, যিনি নাসিরনগরের হামলার ঘটনা তদন্ত করছেন, তিনি বিবিসিকে বলেছেন, যে মোবাইল ফোন থেকে রসরাজ ফেসবুক ব্যবহার করতো তা থেকে স্পর্শকাতর ঐ ছবিটি আপলোড হয়নি বলে তারা প্রমাণ পেয়েছেন।

অনলাইনে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার এক মামলায় রসরাজ এখন কারাগারে।

নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা নিয়ে দেশে ও বিদেশে ব্যাপক তোলপাড় হয়েছে। আর ঐ ঘটনার মূলে ছিল ফেসবুকে অপলোড করা একটি ছবি।