১৩ বছর পর সাংবাদিক মানিক সাহা হত্যা মামলার রায়: ৯ জনের যাবজ্জীবন

Image caption মানিক সাহা

বাংলাদেশের খুলনায় সাংবাদিক মানিক সাহাকে হত্যার প্রায় তেরো বছর পর আজ স্থানীয় আদালতে মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে।

খুলনার বিভাগীয় দ্রুত বিচার আদালতের এই রায়ে নয় জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে।অভিযুক্ত মোট ১১জনের মধ্যে দুই জন খালাস পেয়েছে।

হত্যা মামলায় যে নয় জনের যাবজ্জীবন সাজা হলো, তাদের পাঁচজন গ্রেফতার রয়েছে।

সাজাপ্রাপ্তদের দশ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে। অনাদায়ে তাদের আরও এক বছর জেল খাটতে হবে।

বিস্ফোরক দ্রব্য আইনেও একটি মামলা ছিল। সেই মামলায় পর্যাপ্ত সাক্ষ্য-প্রমাণ না থাকার কথা উল্লেখ করে আদালত অভিযুক্তদের খালাস দিয়েছে।

২০০৪ সালের ১৫ই জানুয়ারি খুলনা শহরে প্রেসক্লাব থেকে অল্পদূরত্বে সাংবাদিক মানিক সাহাকে বোমা হামলা করে হত্যা করা হয়েছিল।

হত্যা মামলায় অভিযুক্তদের চরমপন্থী বাম সংগঠনের সদস্য বলে বলা হয়।তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশনের কারণে মানিক সাহাকে হত্যা করা হয় বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়েছিল।

মামলা একবার পুন:তদন্ত হয়েছে।বছরের পর বছর মামলাটি ঝুলে ছিল।

সরকারি আইনজীবীরা বলেছেন, মামলায় সাক্ষীরা সাক্ষ্য দিতে বিলম্ব করায় বিচারে এত দেরি হয়।

মানিক সাহার ছোট ভাই প্রদীপ সাহা বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, তারা অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ সাজা আশা করেছিলেন।কিন্তু তা হয়নি। তারা এই রায়ে সন্তুষ্ট নন।

মানিক সাহা দৈনিক সংবাদ এবং নিউ এইজ পত্র্রিকার সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে খুলনা থেকে কাজ করেছেন।তিনি খুলনা থেকে বিবিসি বাংলার সাথেও কাজ করেছেন।

সাজাপ্রাপ্তদের আইনজীবীরা রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা জানিয়েছেন।

সম্পর্কিত বিষয়