বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফর: এক কঠিন পরীক্ষা

শুরু হয়ে গেঝে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিউজিল্যান্ড সফর। নিউজিল্যান্ড নিজের মাঠে অত্যন্ত কঠিন প্রতিপক্ষ, তাই বাংলাদেশ যদিও গত দু বছর ধরে ভালো খেলছে - তার পরও তাদের জন্য এ সফর হবে এক কঠিন পরীক্ষা - বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই সফরে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড তিনটি একদিনের ম্যাচ, তিনটি টি২০ এবং দুটি টেস্ট খেলবে।

গত বেশ কিছু দিন ধরে বাংলাদেশ ভালো ক্রিকেট খেলছে, এশিয়া কাপ, টি২০ বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে ভালো করেছে, বেশ কটি ওডিআই সিরিজ জিতেছে, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধেও জিতেছে।

কিন্তু সেগুলো প্রধানত দেশে বা উপমহাদেশের মাটিতে । কিন্তু নিউজিল্যান্ড-এর বিরুদ্ধে তাদের দেশের মাটিতে খেলাটা একেবারেই ভিন্ন ব্যাপার।

নিউজিল্যান্ডকে তাদের দেশের মাটিতে হারানো হবে এক কঠিন পরীক্ষা। তারা নিজের দেশে খুবই শক্ত প্রতিপক্ষ।

কারণ নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা তাদের উইকেট ও কন্ডিশনের পুরো সুবিধা নিতে খুবই দক্ষ - বলছিলেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল ইসলাম বুলবুল।

আমিনুল ইসলাম বুলবুল এবারের মাঠে-ময়দানেতে বিশ্লেষণ করেছেন, এবার বাংলাদেশ দল নিউজিল্যান্ড সফরে কেমন করতে পারে - তাই নিয়ে।

ইংলিশ ফুটবলে কোন উইন্টার ব্রেক নেই কেন?

ছবির ক্যাপশান,

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে কোন উইন্টার ব্রেক নেই

বড়দিনের সময় ইউরোপের ফুটবলে শুরু হয়েছে প্রায় তিন সপ্তাহের ছুটি।

ইউরোপে বড়দিনের ছুটির সময়। ইউরোপিয়ান দেশগুলোতে দু থেকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত ফুটবল লিগগুলো বন্ধ, খেলোয়াড়দের ক্রিসমাসের ছুটি।

কিন্তু ইংল্যান্ডের প্রিমিয়ার লিগ বন্ধ হবে না। ক্রিসমাসর পর দিন থেকে শুরু করে জানুয়ারির ২ তারিখ পর্যন্ত এই আট দিনের মধ্যে প্রিমিয়ার লিগ ক্লাবগুলোকে তিনটি ম্যাচ খেলতে হবে।

ইংলিশ ফুটবলের এই এক বিচিত্র রীতি । ইউরোপের ফুটবলে ডিসেম্বরের শেষ থেকে জানুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত প্রায় তিন সপ্তাহের ছুটি থাকে - যাকে বলে উইন্টার ব্রেক। কিন্তু ইংলিশ ফুটবলে এটা নেই । এখানে দর্শকরা ছুটিতে ফুটবল খেলা দেখবেন - এটা সংস্কৃতির অংশ হয়ে গেছে।

ছবির ক্যাপশান,

ইয়ুর্গেন ক্লপ

কিন্তু লিভারপুলের ম্যানেজার ইয়ুরগেন ক্লপ বলছেন, এটা ঐতিহ্যগত ব্যাপার হলেও দু'দিনের কম সময় ব্যবধানে দুটি ম্যাচ খেলতে হবে এটা তিনি মানতে পারছেন না। ।

ইংলিশ ফুটবল মৌসুম চলে মধ্য আগস্ট থেকে শুরু করে পরের বছর মে পর্যন্ত একটানা নয় মাস ধরে।

অনেকে বলেন, এই লিগ খেলার পর ইংলিশ খেলোয়াড়রা এত ক্লান্ত থাকেন যে এ কারণেই ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ বা ইউরোর মত আন্তর্জাতিক টুনামেন্টে ভালো করতে পারে না।

তাহলে এ নিয়ম এতদিন ধরে চলছে কিভাবে?

এবারের মাঠে ময়দানে-তে এ নিয়ে কথা বলেছেন ফুটবল ভাষ্যকার মিহির বোস।