ভারতের প্রথম তৃতীয় লিঙ্গ কলেজ প্রিন্সিপালের পদত্যাগ

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়
ছবির ক্যাপশান,

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় প্রিন্সিপালের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন

ভারতে কোনো সরকারি কলেজের প্রথম তৃতীয় লিঙ্গ প্রিন্সিপাল দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন।

পদত্যাগের পর তিনি বলেছেন তিনি "হেরে গেছেন।"

গত বছর মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গে কৃষ্ণনগর গভর্নমেন্ট কলেজের প্রিন্সিপালের দায়িত্ব নেন।

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন ওই কলেজটিতে ১৮ মাস দায়িত্ব পালনের পর চাকরি ছাড়তে তিনি বাধ্য হয়েছেন কারণ সেখানে তার পরিচয় নিয়ে তাকে অনবরত হয়রানি সহ্য করতে হয়েছে।

তিনি কলেজের দুজন অধ্যাপকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তাদের বিরুদ্ধে আক্রমণের অভিযোগ এনে।

আরও পড়তে পারেন:

কিন্তু ৫১ বছর বয়স্ক ড: মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় কেন চাকরি ছেড়েছেন তা নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।

কলেজের শিক্ষকরা বলছেন তারা তার প্রশাসনিক নিয়মনীতির বিরোধিতা করেছিলেন। তিনি নারী না পুরুষ সেটা তাদের কাছে কোনো বিবেচ্য বিষয় ছিল না।

তার নিয়োগের সময় ডঃ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন ওই কলেজে প্রিন্সিপাল হিসাবে তার নিয়োগ "অজ্ঞতার বিরুদ্ধে একটা বিজয়।"

পদত্যাগের পর মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন বেশ কিছু শিক্ষার্থী এবং শিক্ষক তার সঙ্গে সহযোগিতা করতে অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন এর কারণ "তিনি ট্রান্সজেন্ডার"।

সহশিক্ষকরা অবশ্য বলেছেন তারা তার কার্যপরিচালনা পদ্ধতির বিরুদ্ধে ছিলেন।

ভারতে প্রায় পাঁচ লক্ষ ট্রান্সজেন্ডার বা তৃতীয় লিঙ্গভুক্ত ব্যক্তি রয়েছেন বলে ধারণা করা হয়।

এখনও সমাজে তাদের গ্রহণযোগ্যতা সেভাবে নেই এবং মূলধারায় কাজ পাওয়া এখনও তাদের জন্য কঠিন।