গাইবান্ধার এমপি হত্যায় জড়িত সন্দেহে আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেফতার, রিমান্ড

  • ফারহানা পারভীন
  • বিবিসি বাংলা, ঢাকা
ছবির ক্যাপশান,

নিহত এমপির লাশ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে

বাংলাদেশে গাইবান্ধার সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে আওয়ামী লীগের একজন নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান 'আহসান হাবিব মাসুদ' জাসদ থেকে জাতীয় পার্টি হয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছিলেন।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আতিয়ার রহমান বিবিসি বাংলাকে জানান, আদালত তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিম্যান্ড মন্জুর করেছেন আজ।

এর আগে এমপি লিটন হত্যার জন্য সন্দেহভাজন কয়েকজন স্থানীয় জামায়াতে ইসলামীর নেতাকে আটক করে পুলিশ।

ছবির ক্যাপশান,

গাইবান্ধার এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলীয় জেলা গাইবান্ধার সরকারি দলীয় এমপি মঞ্জুরুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা ঘটনা ঘটে ৩১শে ডিসেম্বর শনিবার।

পুলিশ বলছে, অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা সেদিন সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জে মঞ্জুরুল ইসলামের বাসায় ঢুকে তাকে গুলি করে হত্যা করে।

এর কিছুদিন আগে এই এমপির ছোঁড়া গুলিতে এক শিশু গুরুতর আহত হওয়ার পর সেখানকার স্থানীয় রাজনীতিতে দলীয় কোন্দলের বিষয়টিও সামনে এসেছিল।