মেয়েদের চুম্বন করে ভারতীয় ইউটিউবার বিপাকে

সুমিত ভার্মা
ছবির ক্যাপশান,

সুমিত ভার্মা তার 'কৌতুক ভিডিও'-র জন্য ক্ষমা চেয়েছেন

ভারতে জনসমক্ষে অপরিচিত মেয়েদের চুম্বন করে পালিয়ে যাওয়ার ভিডিও করে এবং সেটি ইউটিউবে পোস্ট করে বিপাকে পড়েছেন সুমিত ভার্মা নামের ভারতীয় এক ইউটিউবার।

দিল্লীর পুলিশ এখন ঐ ভিডিওগুলো পরীক্ষা করে দেখছে এবং তার 'কৌতুক' ভিডিওর শিকার নারীদের আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করার আহ্বান জানিয়েছে।

ব্যাপক জনরোষের পর ঐ ইউটিউবার ক্ষমা চেয়েছেন এবং ভিডিওটি তার চ্যানেল থেকে মুছে দিয়েছেন।

মি. ভার্মা এমন এক সময়ে ভিডিওটি পোস্ট করেন যখন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের ব্যাঙ্গালোর শহরে নববর্ষ উদযাপনের সময় ব্যাপক যৌন নির্যাতনের অভিযোগ আলোচিত হচ্ছে।

তার ইউটিউব চ্যানেলের প্রায় দেড় লক্ষ সাবস্ক্রাইবার রয়েছে। জনরোষের পর দেয়া এক ভিডিওবার্তায় তিনি বলেন "ঐ ভিডিওটি বিনোদনের উদ্দেশ্যে বানানো এবং কাউকে আঘাত করার উদ্দেশ্যে বানানো হয়নি"।

কিন্তু তার এই ব্যখ্যায় পুলিশ সন্তুষ্ট নয়।

ছবির ক্যাপশান,

ভিডিওতে দেখা যায় মি. ভার্মা ইচ্ছেমতো কোন মেয়ের দিকে এগিয়ে গিয়ে জনসমক্ষে তাকে চুম্বন করছেন

"গণমাধ্যমের সাহায্যে ভিডিওর বিষয়টি দিল্লী পুলিশের নজরে এসেছে। প্রাথমিক একটি তদন্ত আমরা শুরু করেছি। এই অশ্লীল ভিডিওটি ফেসবুক এবং ইউটিউবে দেখা যাচ্ছে এবং সেটি আমরা তদন্ত করছি" ভারতের পিটিআই সংবাদ সংস্থাকে বলেন পুলিশের মুখপাত্র দিপেন্দ্র পাঠক।

"লাইক এবং অনলাইনে প্রচারণা পাওয়ার জন্য এধরণের বিকৃত যৌনতার ভিডিও আমি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট হতে দেখেছি। হয়তো এর সাথে টাকা-পয়সার বিষয়ও জড়িত আছে" বলেন তিনি।

সামাজিক মাধ্যমেও সাধারণ মানুষ মি. ভার্মার "অপরিপক্ব এবং নোংরা" ভিডিওর সমালোচনা করছেন।

ভারতে অনেক জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল আছে এবং এসব চ্যানেলের তারকারা বিনোদনমূলক ভিডিও বানিয়ে থাকেন।

এধরনের একটি চ্যানেল, ট্রাবলসিকার টিম, মি. ভার্মার ব্যাপক সমালোচনা করে বলেছে "নারীদের কিংবা যেকোন মানুষকে অপদস্থ করা কোনভাবেই বিনোদন হতে পারে না"।

"এটা শুধুমাত্র উৎপীড়ন" চ্যানেলটি বলে।