প্রাক্তন প্রেমিককে অ্যাসিড ছোঁড়ার অভিযোগে নারী আটক ভারতে

বিবিসি, নারী, প্রেম, অ্যাসিড

ছবির উৎস, Bangalorenewsphotos

ছবির ক্যাপশান,

লিডিয়া ইয়েশপাউল পেশায় একজন নার্স

প্রাক্তন প্রেমিককে অ্যাসিড ছোঁড়ার অভিযোগে ভারতে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। দেশটির ব্যাঙ্গালোরে এই ঘটনা ঘটেছে।

(সতর্কতার জন্য জানানো দরকার, নিচের ছবি অনেক পাঠকের কাছে পীড়াদায়ক মনে হতে পারে)।

অ্যাসিডে দগ্ধ ব্যক্তি সম্প্রতি ওই মেয়েটির সাথে তার চারবছর ধরে চলা সম্পর্কের ইতি টেনেছিলেন।

শহরের পুলিশ জানাচ্ছে, এটাই কোনও পুরুষকে নারীর দ্বারা অ্যাসিড ছোঁড়ার প্রথম ঘটনা ।

ভারতে ওপর বছরে এক হাজারেরও বেশিবার অ্যাসিড ছোঁড়ার ঘটনা ঘটে। প্রায় সব ক্ষেত্রেই পুরুষদের ছোঁড়া অ্যাসিড সন্ত্রাসের শিকার হয় মেয়েরা।

"আমাদের গত ১২ বছরের রেকর্ড অনুসারে এমন কোনও কেস নেই যেখানে কোন মেয়ে একজন পুরুষকে অ্যাসিড ছুঁড়েছে" বিবিসিকে এমনটাই বলেছেন ব্যাঙ্গালোর পুলিশের ডেপুটি কমিশনার এমএন আনুচেথ।

অ্যাসিডে জয়াকুমার পুরুষোত্তম নামে ৩২ বছর বয়সী ওই যুবকের মুখমণ্ডলের ডানদিকের কিছু অংশ, চোখ, গাল এবং কপালের কিছু অংশ ঝলসে যায়। তবে তার চোখ নষ্ট ঞয়নি, জানিয়েছে পুলিশ কর্মকর্তারা।

ছবির ক্যাপশান,

মিস্টার পুরুষোত্তম বাবা-মায়ের আপত্তির কারণে সম্পর্কের ইতি টেনে নতুন কাউকে খুঁজছিলেন।

মি পুরুষোত্তম পুলিশকে বলেন, তার প্রাক্তন বান্ধবী লিডিয়া ইয়েশপাউল একজন নার্স হিসেবে কাজ করতেন। মিজ ইয়েশপাউল তাকে বিয়ে করতে চাইতেন। তবে মিস্টার পুরুষোত্তমের বাবা-মা এই সম্পর্ক মানতে রাজি হননি। কারণ তাদের দুজনের ধর্ম ভিন্ন।

একজন খ্রিস্টান এবং আরেকজন হিন্দু সম্প্রদায়ের।

তিনি আরও জানান, তিন মাস আগে এই সম্পর্ক শেষ করে দিয়ে তিনি বিয়ের জন্য নতুন কাউকে খুঁজছিলেন।

কাজ শেষে সে বাড়ি ফেরার সময় রাস্তায় এই অ্যাসিড হামলার ঘটনাটি ঘটে এবং লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর পরপরই মিজ ইয়েশপাউল আটক হন।

তার বিরুদ্ধে হত্যা-চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে এবং বুধবার আদালতে হাজির করার পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।