আমেরিকাই সবার আগে: ডোনাল্ড ট্রাম্প

ছবির কপিরাইট Pool
Image caption হোয়াইট হাউসে ওবামা দম্পতির সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং স্ত্রী মেলানি ট্রাম্প।

ওয়াশিংটনে এক ব্যাপক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

অনুষ্ঠানে তাঁর ভাষণে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ দেশকে নতুন করে গড়ে তোলার চেষ্টায় এক হয়েছে।

যেকোন বিবেচনায় সবার আগে থাকবে আমেরিকার স্বার্থের বিষয়টি, বলছেন মি. ট্রাম্প।

তবে তার শপথ গ্রহণের দিনে বিশ্বের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ হয়েছে।

শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন ক্যাপিটল বিল্ডিং এ এসে পৌঁছান তখন তাঁকে বেশি গুরু-গম্ভীর দেখাচ্ছিল।

আরো পড়তে পারেন:

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন 'ফার্স্ট ফ্যামিলির' সদস্য কারা?

'বাংলাদেশ দখলে ভারতের সময় লাগবে দুসপ্তাহ'

বেশি ভোট পেয়েছেন হিলারি, কিন্তু নির্বাচিত হলেন ট্রাম্প

প্রথম একশো দিনে কোন কাজগুলো করবেন ট্রাম্প

হাজার হাজার মানুষ ওয়াশিংটনের বৃষ্টি ভেজা আবহাওয়ার মধ্যে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

ডোনাল্ড ট্রাম্প তার ভাষণে বলেছেন, তিনি ওয়াশিংটন থেকে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেবেন জনগণের কাছে।

ছবির কপিরাইট Scott Olson
Image caption ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন হাজার হাজার মানুষ

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং স্ত্রী মেলানি ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে ওবামা দম্পতির সঙ্গে এক চা চক্রে যোগ দেন।

ওয়াশিংটনে বিক্ষোভ:

ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ গ্রহণের জন্য যখন সবকিছু চূড়ান্ত, তখন ওয়াশিংটনের রাস্তায় দেখা গেছে এক বিরাট ট্রাম্প বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল।

বিক্ষোভকারীদের মুখ ঢাকা ছিল মুখোশ এবং স্কার্ফে। তারা ট্রাম্প বিরোধী শ্লোগান দিতে দিতে যাওয়ার সময় রাস্তায় গাড়ী এবং দোকানের জানালা ভাংচুর করে।

অনেককে হুইসেল বাজাতে দেখা যায়।

বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ পেপার স্প্রে ব্যবহার করে।

বিশ্বের আরও অনেক শহরেও আজ ট্রাম্প বিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে।

রাত ২টা পর্যন্ত অন্তত ৯৫জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া গেছে।

ছবির কপিরাইট John Moore
Image caption নিউ ইয়র্কে ট্রাম্প বিরোধী বিরাট বিক্ষোভে যোগ দেয় বহু মানুষ

বিশ্ব জুড়ে বিক্ষোভ

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শপথ গ্রহণের দিনটিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হয়েছে।

তবে রাশিয়া ছিল ব্যতিক্রম। সেখানে দ্বিতীয় দিনের জন্য আনন্দ উৎসব করেছেন তার একদল সমর্থক। তাদের আশা ট্রাম্পের শাসনামলে রুশ-মার্কিন সম্পর্কের উন্নতি ঘটবে।

লন্ডনে টাওয়ার ব্রীজের ওপর ট্রাম্প বিরোধী বিক্ষোভকারীরা একটি ব্যানার ঝুলিয়ে দেয় যাতে লেখা ছিল, "বিল্ড ব্রিজেস, নট ওয়ালস।" অর্থাৎ ডোনাল্ড ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্ত দেয়াল তুলে বন্ধ করে দেবেন বলে যে হুমকি দিয়েছিলেন তার প্রতি ইঙ্গিত করে এতে বলা হচ্ছে, দেয়াল তৈরি না করে সেতু নির্মাণ করুন।

বিক্ষোভকারীরা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বিশ্বের জন্য এক বিরাট হুমকি বলে বর্ণনা করেন।

ট্রাম্প বিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে অস্ট্রেলিয়াতেও।

ওমাবা পরিবারের হোয়াইট হাউজ ত্যাগ

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিষেকের পর শেষবারের মতো সেনাবাহিনীর একটি এয়ারক্রাফটে করে হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করেছে ওবামা পরিবার।

যদিও মেয়ের পড়াশোনার কারণে ওবামা পরিবার ওয়াশিংটনেই থাকবে, তবে আপাতত তারা অবকাশ যাপনে ক্যালিফোর্নিয়ার পাম বিচের উদ্দেশ্যে ওয়াশিংটন ছেড়েছেন।

সম্পর্কিত বিষয়