শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১৫তম

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ছবির কপিরাইট ফোকাস বাংলা
Image caption ঢাকায় আজ এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দুর্নীতির ধারণা সূচক প্রকাশ করেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ এবার বিশ্বের দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ সমূহের তালিকায় ১৫তম অবস্থানে রয়েছে।

দুর্নীতিবিরোধী আন্তর্জাতিক সংস্থা ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) বুধবার দুর্নীতির ধারণা সূচক প্রকাশ করে, সেখানে বাংলাদেশের এই অবস্থান পাওয়া যাচ্ছে।

গত বছর এই সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৩তম।

এ বছর শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ সোমালিয়া।

আর সবচেয়ে কম দুর্নীতির দেশ ডেনমার্ক।

টিআইয়ের দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে, শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের যে তালিকা অর্থাৎ দুর্নীতির ধারনা সূচকের মোট দেশগুলোর মধ্যে নিচের দিকে থাকা দেশের তালিকার বিচারে বাংলাদেশের উন্নতি হলেও সার্বিক বিচারে বাংলাদেশ বরং পিছিয়ে।

দুর্নীতি সূচকে ভাল থেকে খারাপ, এই তালিকায় এবছর বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৫। অথচ এর আগের বছর বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৩৯।

অর্থাৎ ছয় ধাপ অবনতি হয়েছে বাংলাদেশের।

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান একমাত্র আফগানিস্তানের উপরে।

আফগানিস্তান শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় রয়েছে ষষ্ঠ অবস্থানে।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) বলছে, এই অবস্থান পরিবর্তন কোন বিশেষ গুরুত্ব বহন করে না, এ বছর নতুন নতুন দেশ যোগ হয়েছে বলে বাংলাদেশের অবস্থানে পরিবর্তন এসেছে।

টিআইবির প্রধান নির্বাহী ড. ইফতেখারুজ্জামান বলছেন, "র‍্যাংকিং বাড়ল কি কমলো এর উপর ধারণা করে দুর্নীতি বাড়ল বা কমল এটা বলা যাবে না।

এখানে স্কোরটাই গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে তিনি বলছেন, বাংলাদেশের স্কোর এবার এক পয়েন্ট বেড়ে ২৬।

তিনি বলছেন, কোন দেশের স্কোর যদি ৪৩ হয়, তাহলে বলা যায় তার মধ্যম পর্যায়ে দুর্নীতি প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়েছে।

বাংলাদেশের স্কোর সেখান থেকে অনেক কম।

তাছাড়া গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের স্কোরে বড় ধরণের পরিবর্তনও আসছে না।

"ফলে গুণগত পরিবর্তন এসেছে, একথা বলা যাবেনা", বলছেন ড. ইফতেখারুজ্জামান।

২০০১ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত বিশ্বের সবচাইতে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে বিবেচিত হয়েছিল বাংলাদেশ।

এর পর থেকে অবস্থান ভাল হতে শুরু করে।

২০০৬ সালে বাংলাদেশে ছিল তৃতীয় সর্বোচ্চ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ, ২০০৭ সালে ছিল সপ্তম।

সম্পর্কিত বিষয়