সুন্দরবনে ট্রলার থেকে ১৮টি হাঙ্গর উদ্ধার, ১২ জন আটক

বাংলাদেশ

ছবির উৎস, Robertus Pudyanto

ছবির ক্যাপশান,

হাঙ্গর পাচারের চক্রগুলো হয়তো বাংলাদেশে সক্রিয় হচ্ছে, বলছেন একজন কর্মকর্তাি

বাংলাদেশের সুন্দরবনে বলেশ্বর নদীতে ট্রলারে করে হাঙ্গর শিকার ও পাচারের অভিযোগে উপকূল রক্ষীরা গতকাল রাতে ১২ জন জেলেকে আটক করেছে।

কোস্টগার্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, বঙ্গোপসাগর থেকে আহরণ করা ১৮টি হাঙ্গর ট্রলারে করে পাচারের জন্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিলো এবং প্রতিটি হাঙ্গর ছিল প্রায় ৬ ফুট দীর্ঘ।

হাঙ্গর, তিমি, ডলফিন ইত্যাদি শিকার বাংলাদেশে আইনত নিষিদ্ধ।

ছবির উৎস, YOSHIKAZU TSUNO

ছবির ক্যাপশান,

হাঙ্গর

মংলায় কোস্টগার্ডের একজন কর্মকর্তা লে. কমান্ডার এম ফরিদুজ্জামান বিবিসি বাংলাকে বলেন, পিরোজপুর জেলার পচা নদীতে একটি জেলে নৌকার গতিবিধি দেখে সন্দেহ হয়।

এর পর ট্রলারটি থামিয়ে তল্লাশি করে হাঙ্গরগুলো দেখতে পান তদন্তকারীরা।

তিনি বলেন, প্রতিটি হাঙ্গর প্রায় ৬ ফিটের মত লম্বা এবং ওজন ৫/৬ মণ।

তার কথায়, এই জেলেদের কাছে যে জাল ছিল তাতে এত বড় হাঙ্গর ধরতে পারার কথা নয়।

ছবির উৎস, GIANLUIGI GUERCIA

ছবির ক্যাপশান,

বাংলাদেশে হাঙ্গর শিকার আইনত নিষিদ্ধ

তিনি বলেন, তারা হয়তো হাঙ্গরগুলোর বাহক হিসেবে কারো কাছে পৌঁছে দেবার জন্য নিয়ে যাচ্ছিল।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে হাঙ্গর পাচার খুব বেশি দেখা না গেলেও মনে হচ্ছে এ ধরণের চক্রগুলো সক্রিয় হচ্ছে।