উত্তর কোরিয়া 'পরমাণু হামলায় প্রস্তুত', আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি

বিবিসি, আমেরিকা, যুক্তরাষ্ট্র

ছবির উৎস, Reuters

ছবির ক্যাপশান,

কিম জং-আনকে বেশ হাশি-খুশি এবং হালকা মেজাজে দেখা গেছে।

বিশ্বজুড়ে সংবাদ মাধ্যমের নজর যখন উত্তর কোরিয়ার দিকে, তেমনই সময় আমেরিকাকে উশকানিমূলক পদক্ষেপ না নিতে সতর্ক করেছেন দেশটির নেতা কিম জং-আন।

তিনি হুমকিও দিয়েছেন যে, প্রয়োজনে "পাল্টা পরমাণু হামলার জন্য প্রস্তুত" পিয়ং ইয়ং।

আজ শনিবার উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল-সাং এর ১০৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন জং-আন।

আর এই বক্তব্য এলো এমনই এক সময় যখন উত্তর কোরিয়া নতুন করে পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা চালাতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

কোরিয়ার যে উপদ্বীপে পরমাণু পরীক্ষা চালানোর কথা বলা হচ্ছে সেখানে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরী।

দেশটির সামরিক কর্মকর্তা চো রেয়ং-হায়ে বলেছেন, "যেকোনো পরমাণু হামলার বিপরীতে আমরা আমাদের নিজস্ব কায়দায় পাল্টা পরমাণু আঘাত করবার জন্য প্রস্তুত"।

আর এমন প্রেক্ষাপটে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কার মধ্যেই, নিজেদের সামরিক শক্তি তুলে ধরার সুযোগটিকে কাজে লাগালেন কিম জং আন।

শনিবার পিয়ং ইয়ং-এ কুচকাওয়াজে ট্যাংক এবং অন্যান্য সামরিক সরঞ্জামের বড় ধরনের প্রদর্শনী করা হয় নিজেদের বর্তমান সামরিক শক্তি তুলে ধরবার জন্য।

ছবির ক্যাপশান,

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সংঘাত জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কার মধ্যেই, নিজেদের সামরিক শক্তি তুলে ধরলো পিয়ং ইয়ং।

ওই সামরিক প্রদর্শনীতে সাবমেরিন থেকে উৎক্ষেপণ-যোগ্য ব্যালাস্টিক মিসাইল প্রথমবারের মত জনসমক্ষে তুলে ধরা হয়। বিশ্বের যেকোনো জায়গায় লক্ষ্যবস্তুকে টার্গেট করার উদ্দেশ্যে এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার সম্ভব।

এদিকে কোরিয়ার যে উপদ্বীপে পরমাণু পরীক্ষা চালানোর কথা বলা হচ্ছে সেখানে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরী।

এমন প্রেক্ষাপটে শুক্রবার চীনের পক্ষ থেকে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। আর 'যুদ্ধ' লেগে গেলে কোনও পক্ষই তাতে জয়ী হবে না বলেও উল্লেখ করেছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।