ভারতে 'উত্তম সন্তানের' জন্য আরএসএসের প্রকল্প

ভারত
ছবির ক্যাপশান,

গর্ভ বিজ্ঞান সংস্কার প্রকল্প নিয়েছে আর এস এস

ভারতে হিন্দু জাতীয়তাবাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ বা আরএসএস একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে - যাতে মহিলারা যাতে 'উত্তম সন্তান' জন্ম দিতে পারে তার বিস্তারিত পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

এর মধ্যে আছে অভিভাবকদের তিন মাসব্যাপি 'শুদ্ধিকরণ', গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান অনুযায়ী যৌনমিলনের দিন-ক্ষণ নির্ধারণ, স্ত্রী গর্ভবতী হয়ে যাবার পর যৌনসংসর্গ থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকা, এবং বিশেষ ধরণের খাদ্য গ্রহণ।

ভারতের এনডিটিভির এক রিপোর্টে বলা হয়,আরএসএসের স্বাস্থ্য শাখা আরোগ্য ভারতীর এ প্রকল্পের নাম 'গর্ভ বিজ্ঞান সংস্কার'।

প্রকল্পের মতে, এর ফলে নিখুঁত এবং 'যেমনটি চাই তেমন' সন্তান পাবেন পিতামাতা।

আরোগ্য ভারতীর জাতীয় আহবায়ক ড. হিতেশ জানি বলেন, এসব পদ্ধতি যথাযথভাবে অনুসরণ করলে অল্পশিক্ষিত, নিম্ন বুদ্ধিমত্তার অভিভাবকও মেধাবী সন্তানের জন্ম দিতে পারবে। বেঁটে ও কালো রঙের পিতামাতার সন্তান হতে পারে দীর্ঘকায় এবং তাদের গায়ের রঙ হতে পারে উজ্জ্বল।

মি জানি বলেন, এসব পদ্ধতির কথা হিন্দু শাস্ত্রে উল্লেখ আছে।

একটি পত্রিকায় সাক্ষাৎকার দিয়ে এ প্রকল্পের আহ্বায়ক ড. কারিশমা মোহনদাস নরওয়ানি বলেছেন, গুজরাট রাজ্যে এ কর্মসূচি এক দশক আেই চালু হয়েছে, আর জাতীয় পর্যায়ে সুচনা হয়েছে ২০১৫ সালে।

শিগগীরই উত্তর প্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যেও এটা চালু হবে।

এর লক্ষ্য হলো ২০২০ সালের মধ্যে এ কর্মসূচির মাধ্যমে হাজার হাজার শিশুর জন্ম ঘটানো - বলেন মি. নরওয়ানি।

আরএসেএসের একজন প্রচারক বলেছেন, চার দশকেরও বেশি আগে জার্মানি থেকে এ ধারণা পেয়েছিলেন এই সংগঠনের একজন সিনিয়র নেতা।