লন্ডনে পাতাল রেলে বিস্ফোরণকে পুলিশ সন্ত্রাসী হামলা বলছে

ট্রেনের কামরায়র ভেতরে বিস্ফোরক

ছবির উৎস, PA

ছবির ক্যাপশান,

ট্রেনের কামরায়র ভেতরে বিস্ফোরক

লন্ডনে পুলিশের সদর দপ্তর স্কটল্যাণ্ড ইয়ার্ড থেকে বলা হয়েছে দক্ষিণ পশ্চিম লন্ডনে টিউব-রেলের কামরায় শুক্রবার সকালের ব্যস্ত সময়ে "ঘরে তৈরি একটি বোমার" বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

সহকারী পুলিশ কমিশনার মার্ক রোওলি বলেছেন ডিস্ট্রিক্ট লাইনে পার্সনস গ্রিন স্টেশনের ওই বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্ত করছে কয়েকশ গোয়েন্দা যারা এমআইফাইভের গোয়েন্দাদের সঙ্গে কাজ করছেন।

১৮জনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। বেশিরভাগেরই আঘাত আগুনে পোড়া জনিত।

এই বিস্ফোরণকে পুলিশ সন্ত্রাসী ঘটনা বলে দেখছে।

ছবির উৎস, AFP

ছবির ক্যাপশান,

সকাল ৮:২০ নাগাদ ডিস্ট্রিক্ট লাইনের ট্রেনে এই বিস্ফোরণ ঘটে

পুলিশ বলেছে আগুন কীভাবে শুরু হয়েছিল সে বিষয়ে এত তাড়াতাড়ি নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে মাটির ওপরের এই স্টেশনটি পুলিশ এখন ঘিরে রেখেছে।

টুইটারে পোস্ট করা একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে বাজার করার প্লাস্টিক ব্যাগের ভেতর থেকে একটি কালো হয়ে যাওয়া রং-এর টিন, যার মধ্যে থেকে তারের মত জিনিস বেরিয়ে আছে। সেখান থেকে আগুন জ্বলছে- অবশ্য আগুন ছিল খুবই ছোট মাপের।

লন্ডনের পাতাল রেল নেটওয়ার্কের এই ট্রেনটি যখন মাটির ওপরের স্টেশন পার্সনস গ্রিনে ছিল তখন যাত্রীরা সামনের দিকের একটি কামরা থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পায়। এর পরপরই সেখানে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।

যাত্রীরা জানিয়েছে কামরার দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে ত্রাস শুরু হয়ে যায়, সিঁড়ি বেয়ে উপরে ওঠার জন্য হুড়োহুড়িতে পদদলিত হয়ে বেশ কিছু মানুষ আহত হয়।

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

আহত হয়েছে বেশ কিছু মানুষ

ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিবিসির একজন সংবাদদাতা বলছেন একজন মহিলাকে মুখে ও পায়ে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হয়। তার জ্ঞান ছিল।

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে সরকারের জরুরি কমিটি কোবরা বৈঠক বসছে কিছুক্ষণের মধ্যেই।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন এবং বলেছেন "সন্ত্রাসী হামলা লন্ডনকে কখনও ভয় দেখাতে বা পরাজিত করতে পারবে না।"