কলকাতায় তৈরি জর্জ হ্যারিসনের সেতার নিলামে

August 1972: Former Beatle George Harrison (1943 - 2001) with his wife, model Patti Boyd and sitar player Ravi Shankar (centre)

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

রবিশঙ্করের (মাঝে) সঙ্গে জর্জ হ্যারিসন ও তার তখনকার স্ত্রী প্যাটি বয়েড

বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী জর্জ হ্যারিসনের একটি সেতার চলতি মাসেই আমেরিকাতে নিলামে উঠছে। এই সেতারটির মালিক ছিলেন জর্জ হ্যারিসন, এটি তিনি বহুদিন বাজিয়েওছেন।

এই ভারতীয় বাদ্যযন্ত্রটি কেনা হয়েছিল লন্ডনের অক্সফোর্ড স্ট্রিটের একটি দোকান থেকে। বিটলস-এর গান 'নরওয়েজিয়ান উড' রেকর্ড করার সময় এই সেতারটি ব্যবহার করেন জর্জ হ্যারিসন।

তবে সেতারটি বানানো হয় কলকাতার এক সুপরিচিত মিউজিক শপে। পরে সেটি উপহার দেওয়া হয় হ্যারিসনের প্রথম স্ত্রী প্যাটি বয়েডের এক বন্ধুকে।

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর এই সেতারটির জন্য বিডিং শুরু হবে ৫০ হাজার ডলার থেকে।

বিটলস-এর দ্বিতীয় ফিল্ম 'হেল্প'-এর সেটে এই সেতারটি প্রথম আবিষ্কার করেন জর্জ হ্যারিসন। সেটা ছিল ১৯৬৫ সাল।

প্রাচ্যের বাদ্যযন্ত্রের প্রতি তার আকর্ষণ যে কত প্রবল ছিল, সেটা নরওয়েজিয়ান উড রেকর্ড করার সময় এই সেতার বাজিয়েই প্রমাণ করেছিলেন জর্জ হ্যারিসন।

পরের বছর তিন যখন প্যাটি বয়েডের সঙ্গে বার্বেডোসে মধুচন্দ্রিমায় যান, সেখানে বয়েডের বন্ধু জর্জ ড্রামন্ডকে তিনি ওই সেতারটি উপহার দিয়ে দেন।

বিটলসের 'নরওয়েজিয়ান উড' ছিল কোনও বাণিজ্যিক রেকর্ডিংয়ে একটি পশ্চিমা রক ব্যান্ডের প্রথম সেতার ব্যবহার। ১৯৬৫-র অক্টোবরে তা এক ক্ষণস্থায়ী 'রাগা-রক' জঁনরের জন্মও দিয়েছিল।

ছবির ক্যাপশান,

এই সেই যুগান্তকারী সেতার

তার পরের বছর তিনি বিখ্যাত সেতার মাইস্ত্রো রবিশঙ্করের কাছে সেতার বাজানো শিখতে ভারতে পাড়ি দেন।

২০০০ সালে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রবিশঙ্কর বলেছিলেন তিনি যখন প্রথম নরওয়েজিয়ান উডে হ্যারিসনকে সেতার বাজাতে শোনেন, সেটা তার মোটেও ভাল লাগেনি।

হ্যারিসন নিজেও অবশ্য সে ব্যাপারে একমত ছিলেন। ওই গানে সেতারের ব্যবহার যে 'খুব সাধারণ' ছিল, সেটা তিনিও পরে স্বীকার করেছেন।

"আর আমি নিজে তখন জানতামও না কীভাবে সেতার টিউন করতে হয়। তা ছাড়া সেটা খুব শস্তা মানের সেতারও ছিল।"

"কিন্তু আমাদের ব্যান্ডে তখন সবাই নতুন ভাবনা-চিন্তা নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করতে চাইত", বলেছিলেন তিনি।

নতুন ভাবনার জন্ম দেওয়া সেই শস্তা সেতারই এখন বিপুল দামে আমেরিকায় নিলামে চড়তে যাচ্ছে।