হোলি আর্টিজান হামলার 'হোতা' মারজানের বোন যশোরের এক বাড়ি থেকে আটক

ছবির কপিরাইট গুগল ম্যাপ
Image caption যশোরের একটি চারতলা বাড়িতে ভোর বেলা অভিযান চালায় নিরাপত্তা বাহিনী

বাংলাদেশের পুলিশ বলছে, জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার সন্দেহে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলা শহর যশোরের ঘোপ এলাকার একটি বাড়ি থেকে তারা এক নারীকে আটক করেছে।

পুলিশ বলছে, এই নারী ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার 'অন্যতম হোতা' নুরুল ইসলাম মারজানের বোন, এবং সে নিজেও জঙ্গি তৎপরতার সাথে জড়িত।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ভোর থেকে বিশাল সংখ্যক পুলিশ এবং জঙ্গি দমনে পুলিশের বিশেষ ইউনিট সোয়াত কর্মীরা যশোরের ঘোপ ন'পাড়া এলাকার চারতলা একটি ভবন ঘেরাও করে রাখে।

বাড়িটিতে থাকা অন্য লোকজনকে পুলিশ সরিয়ে ফেলে। মারজানের বোন - যার নাম খোদেজা - তাকে আত্মসমর্পণ করাোর জন্য তার বাবা-মাকেও সেখানে নিয়ে আসা হয়।

তারপর দুপুরের পর এক মহিলা তার তিন শিশুকে নিয়ে আত্মসমর্পণ করেন।

ছবির কপিরাইট হোলি আর্টিজান বেকারি
Image caption আটককৃত মহিলা হোলি আর্টিজান হামলার কথিত একজন হোতার বোন

পুলিশ পরে সাংবাদিকদের জানায়, সেখান থেকে সুইসাইডাল ভেস্ট, এবং বোমা পাওয়া গেছে - যা পরে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ধ্বংস করা হয়। পরে সাংবাদিকদের এগুলো দেখানো হয়।

স্থানীয় সাংবাদিক সাজেদ রহমান বকুল বিবিসি বাংলাকে বলেন, খোদেজার পরিবার গত দেড় বছর ধরে এ বাড়িতে থাকতো বলে স্থানীয় লোকেরা বলছেন। তার স্বামী একটি ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি।

পুলিশ খোদেজাকে 'জঙ্গি তৎপরতার সাথে যুক্ত' বললেও স্থানীয় লোকেরা এরকম কিছু বলতে পারছে না।

সম্পর্কিত বিষয়