মিশরের কায়রো কেনো মেয়েদের জন্য বিপজ্জনক শহর?

Image caption অধিকারকর্মীরা বলছেন কায়রো শহরটি নারীর জন্য কঠিন এক শহর

মিশরের রাজধানী কায়রোকে বলা হচ্ছে মেয়েদের জন্য 'সবচেয়ে বিপজ্জনক' শহর।

আর নারীদের জন্য খারাপ মহানগরীর মধ্যে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা রয়েছে সপ্তম স্থানে, তবে যৌন সহিংসতার দিক থেকে ঢাকার অবস্থান চতুর্থ।

মেগাসিটি বা বড় শহরগুলোর ওপর টমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন পরিচালিত একটি আন্তর্জাতিক জরিপে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

বিশ্বজুড়ে ১৯টি মেগাসিটিতে পরিচালিত এই জরিপে নারী ইস্যুতে বিশেষজ্ঞদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো যে যৌন সহিংসতা থেকে মেয়েরা ঠিক কতোটা সুরক্ষিত।

জরিপে দেখায় বড় শহরের মধ্যে লন্ডন সবচেয়ে বেশি নারী বান্ধব, এরপরেই রয়েছে টোকিও ও প্যারিস।

আর কায়রোর নারী অধিকার কর্মীরা বলছেন দেশটির পুরনো প্রচলিত প্রথা গুলোই নারীদের প্রতি বৈষম্যের জন্য বেশি দায়ী এবং নারীদের জন্য প্রগতিশীল কোন পদক্ষেপ নেয়াও সেখানে কঠিন।

তাদের মতে ভালো স্বাস্থ্যসেবা, অর্থ ও শিক্ষার মতো বিষয়গুলোতেও নারীর জন্য সুযোগ কম।

মিশরের সুপরিচিত সাংবাদিক শাহিরা আমিন বলছেন শহরের সবকিছুই নারীর জন্য কঠিন এমনকি রাস্তায় হাঁটতে গেলেও বিভিন্ন হয়রানির শিকার হতে পারে একজন নারী।

নারীদের জন্য বিপজ্জনক মেগাসিটির তালিকায় কায়রোর পরেই আছে পাকিস্তানের করাচী এবং কঙ্গোর কিনসাসা।

আর যৌন হয়রানি বা ধর্ষণের জন্য সবচেয়ে খারাপ শহর হলো ভারতের দিল্লী ও এরপরেই আছে ব্রাজিলের সাও পাওলো।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption রয়টার্সের জরিপ বলছে, ২০১২ সালের তুলনায় ২০১৬তে দিল্লিতে ধর্ষণের ঘটনা ৬৭% শতাংশ বেড়েছে ২০১৬তে - পুলিশই রেকর্ড করেছে ২,১৫৫টি ধর্ষণের ঘটনা।

আরও পড়ুন যৌন সহিংসতার জরিপে সবার উপরে দিল্লি

অযোধ্যায় রামের মূর্তি তৈরিতে কেন অর্থদান করছে মুসলমানরা?

সম্পর্কিত বিষয়