ইরাকি কুর্দি নেতা মাসুদ বারজানিকে পদত্যাগ করতে বললো বিরোধী দল গোরান

ইরাকি কুর্দি প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানি ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption ইরাকি কুর্দি প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানি

ইরাকি কুর্দি নেতা মাসুদ বারজানিকে পদত্যাগ করার জন্য আহ্বান জানিয়েছে বিরোধী দল গোরান।

শুধু তাই নয়, কেন্দ্রীয় ইরাকি কর্তৃপক্ষের সাথে কুর্দিদের যে সংকট তৈরি হয়েছে তা সমাধানের জন্য একটি ন্যাশনাল স্যালভেশান গর্ভনমেন্ট বা জাতীয় মুক্তি সরকার গঠনের জন্যেও দাবী জানিয়েছে দলটি।

কুর্দি জনগোষ্ঠী বর্তমানে যে ভোগান্তির ভেতর দিয়ে যাচ্ছে তার জন্য কুর্দিস্তান ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা এবং স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তানের প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানিকে দায়ী করেছে প্রধান বিরোধী দল গোরান বা চেঞ্জ মুভমেন্ট।

গত ১৬ই অক্টোবর ইরাকি সৈন্যদের হাতে তেল সমৃদ্ধ শহর কারকুকে কুর্দিরা পরাজিত হয়।

ইরাকের স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তানের কুর্দিরা বাগদাদের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও গত ২৫ সেপ্টেম্বর স্বাধীনতা প্রশ্নে গণভোট করে। গণভোটে কারকুকের কুর্দিরাও অংশ নিয়েছিল।

কুর্দিস্তানের স্বাধীনতার পক্ষে বিপুল ভোট পড়ার পর থেকেই বাগদাদের সরকারের সঙ্গে তাদের সংঘাত দানা বাঁধতে শুরু করে।

কুর্দিশ শহর সুলাইমানিয়াতে বৈঠকের পর এখন এক বিবৃতি প্রকাশ করে গোরানের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, কুর্দিস্তান প্রেসিডেন্সি অবশ্যই ভেঙে দিতে হবে এবং বর্তমানে যে সংকট ঘনীভূত হয়েছে তা থেকে মুক্তির জন্য একটি জাতীয় মুক্তি সরকার গঠণ করতে হবে।

কুর্দিদের জাতিগত আ আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকার ও দাবীকে গোরান সমর্থন জানালেও গত ২৫শে সেপ্টেম্বরে যে গণভোট হয়েছে তারা সেটির বিরোধিতা করে। আর গণভোটের বিরোধিতার পেছনের মূল কারণ হিসেবে তারা বলছে, গণভোটের জন্য যে সময়টিকে বেছে নেয়া হয়েছে তা যথার্থ ছিল না।

ইতোমধ্যেই ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদি এ গণভোটকে অসাংবিধানিক বলে আখ্যা দিয়েছেন। কিন্তু এই ভোটকে বৈধ বলে উল্লেখ করছে আঞ্চলিক সরকার।

বিবিসি বাংলার আরো খবর:

সুষমা-খালেদা বৈঠকে জোর ‘গণতান্ত্রিক পরম্পরা’য়

পানশালায় আরব ব্যক্তির নিতম্ব ছুঁয়ে তিন মাসের জেল

কেন বারবার গুজরাটে ছুটে যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি?

সম্পর্কিত বিষয়