ড্রোন উড়িয়ে পার্লামেন্টের ছবি তোলার সময় বার্মায় সাংবাদিক আটক

ছবির কপিরাইট EPA
Image caption নেপিড-তে মিয়ানমার পার্লামেন্ট

মিয়ানমারের পুলিশ একটি তুর্কী সংবাদ মাধ্যমের দু'জন সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে। তারা পার্লামেন্টের কাছেই একটি ড্রোন উড়াচ্ছিলেন।

এই দু'জন সাংবাদিক তুর্কী রেডিও এবং টেলিভিশন টিআরটির জন্যে কাজ করছিলেন।

তাদের সাথে যারা দোভাষী ও চালক হিসেবে কাজ করছিলেন পুলিশ তাদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

রোহিঙ্গা সঙ্কটকে ঘিরে যখন তুরস্ক ও মিয়ানমারের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছে তখনই তাদেরকে গ্রেফতার করা হলো।

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে গত দু'মাসে ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন।

গ্রেফতার হওয়া এই দু'জন সাংবাদিক টিআরটির জন্যে কাজ করলেও তারা মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরের।

গ্রেফতারের পর রাজধানী নেপিড-এর একটি থানায় পুলিশ তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ যে তারা ড্রোন উড়িয়ে পার্লামেন্টের ছবি তোলার চেষ্টা করছিলেন।

ছবির কপিরাইট SAM JAHAN
Image caption বাংলাদেশে পালিয়ে আসছেন রোহিঙ্গারা

পরে তাদের সাথে কাজ করছিলেন যে বর্মী দোভাষী তার বাড়িতেও পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে। তাকেসহ সাংবাদিকদের গাড়ির চালককেও পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

গতমাসেই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেছিলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে যেভাবে সহিংসতা চালানো হচ্ছে সেটা গণহত্যার সমান।

কিন্তু মিয়ানমার সরকার বলছে, তারা জঙ্গি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে।

তুর্কী ফাস্ট লেডি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্দশা দেখতে বাংলাদেশের কক্সবাজারেও ছুটে গিয়েছিলেন।