ছবি গ্যালারি: স্মৃতিতে সাইক্লোন সিডর

বাংলাদেশের উপকূলে সাইক্লোন সিডর আঘাত হানার ১১ বছর পার হয়েছে। ২০০৭ সালের ১৫ই নভেম্বরের সেই ভয়াবহ স্মৃতি হয়তো ধুসর হয়ে গেছে অনেকের কাছে। আজকের ছবি গ্যালারিতে তুলে ধরা সেই সময়কার কিছু ছবি, যা ধরা পড়েছিল সাংবাদিকদের ক্যামেরায়। কিন্তু সাইক্লোন সিডরের অনেক গল্প এখনও না বলাই রয়ে গেছে।

ছবির ক্যাপশান,

সিডরে লন্ডভন্ড গ্রাম, হেলিকপ্টার থেকে তোলা ছবি।

ছবির ক্যাপশান,

উপকূলের একটি ছোট বন্দরে সাইক্লোন সিডরের ধ্বংসলীলা।

ছবির ক্যাপশান,

ঝড়ের প্রবল দাপটে মাটিতে উঠে গিয়েছিল এই স্টিমার।

ছবির ক্যাপশান,

ঘরবাড়ি হারিয়ে নি:স্ব হয়ে পড়েছিল এই পরিবারটি।

ছবির ক্যাপশান,

বাগেরহাটের তাফুল গ্রামে সিডরে নিহত গবাদিপশু।

ছবির ক্যাপশান,

সিডরের পর সংসার গোছানোর চেষ্টা করছে বাগেরহাটের একটি পরিবার।

ছবির ক্যাপশান,

ধ্বংসস্তুপের মাঝে মোড়েলগঞ্জের এই শিশুটির মুখে উঠছে দুপুরের খাবার।

ছবির ক্যাপশান,

গুলবুনিয়া গ্রামে চলছে ভাঙা সংসার জোড়া দেয়ার কাজ।

ছবির ক্যাপশান,

সন্তানের কবরের ওপর এক মা। সাইক্লোন সিডরে গর্জনবুনিয়া গ্রামের ফাতিমা তার চার বছর বয়সী কন্যা শাহিনুরকে হারান।

ছবির ক্যাপশান,

মোড়েলগঞ্জে সিডরে নিহতদের গণ দাফন।

ছবির ক্যাপশান,

সাইক্লোন সিডর আঘাত হানা পর বাংলাদেশে উপকূলীয় এলাকায় ছুটে যায় বিবিসির সাংবাদিকদের একটি দল। ঝড়ের জরুরি খবর পাঠানোর পাশাপাশি তারা সাধ্যমত আহতদের চিকিৎসাও করেন।

ছবির ক্যাপশান,

চালতাতলি গ্রামে রিলিফের খাবার নেয়ার আশায় গ্রামবাসীদের লাইন। চারিদিকে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের মাঝে সে সময়ে অনেকের ঘরেই চুলা জ্বলেনি।

ছবির ক্যাপশান,

সিডরের পর সাহায্য করতে বাংলাদেশে এসেছিল মার্কিন মেরিন সেনা। এখানে হেলিকপ্টার থেকে ত্রাণ সামগ্রী নামাতে সাহায্য করছেন বরিশালের গ্রামবাসীরা।

ছবির ক্যাপশান,

বরগুনার নিশানবাড়ী এলাকায় ত্রাণের জন্য অপেক্ষা করছেন সিডরের শিকার গ্রামবাসীরা।

ছবির ক্যাপশান,

সাইক্লোন সিডরে ফসলের জমিতে ঢুকে পড়ে নোনা জল। এখানে নদীর ঘাটে রিলিফের নৌকার কাছে সাহায্যপ্রার্থীদের ভিড়।