বাড়িতে আগুন লাগার পর বেরিয়ে এল ১৬০টি অস্ত্র

উদ্ধার করা একে ফোরটি-সেভেন। বেয়নটেও লাগানো রয়েছে। ছবির কপিরাইট Kent Police
Image caption উদ্ধার করা একে ফোরটি-সেভেন। বেয়নটেও লাগানো রয়েছে।

বাড়িতে আগুন লেগেছিল বলেই বেরিয়ে এলো ১৬০টি আগ্নেয়াস্ত্র। তার মধ্যে রয়েছে মেশিনগান এবং একে ফোরটি-সেভেন অ্যাসল্ট রাইফেল।

জনজীবনকে হুমকির মুখে ফেলার দায়ে ইংল্যান্ডের এক আদালত ৭৪-বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

গত মে মাসে ইংল্যান্ডের শহর জিলিংহ্যামে পল বুশেলের বাড়ি থেকে পুলিশ এসব আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে।

তবে মামলা চলার সময়েই মি. বুশেল তার দোষ স্বীকার করেন।

তিনি জানান যে দীর্ঘদিন ধরে তিনি এসব অস্ত্র সংগ্রহ করেছেন।

তার বাড়িতে আগুন লাগার খবর পেয়ে দমকল বাহিনীর সাথে সাথে যখন পুলিশ এসে হাজির হয় তখন তারা এসব লাইসেন্স-বিহীন অটোম্যাটিক অস্ত্র খুঁজে পায়।

Image caption পল বুশেলের নেশা ছিল অস্ত্র্র জোগাড় করা।

কেন্ট পুলিশের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, বেশিরভাগ অস্ত্র যখন কেনা হয়েছিল তখন সেগুলো নিষ্ক্রিয় ছিল। কিন্তু পরে সেগুলো সক্রিয় করা হয়।

মি. বুশেল বিভিন্ন অস্ত্র-মেলায় যেতেন এবং নানা ধরনের অস্ত্র কিনতেন।

পুলিশ জানায়, এসব অস্ত্র তিনি খোলা জায়গায় সাজিয়ে রাখতেন। কোন কোন অস্ত্রে গুলি ভরা থাকতো।

ঐ বাড়িতে কিছু শিশুরও যাতায়াত ছিল বলে পুলিশ বলছে।

তার বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার সময় বিচারক বলেন, "আপনার সাথে কোন অপরাধী চক্রের যোগাযোগ নেই এটা পরিষ্কার। কিন্তু এই ধরনের অস্ত্রের ধ্বংস করার ক্ষমতা কতখানি তা আপনি অন্য অনেকের চেয়ে বেশি জানেন। এই অস্ত্র অপরাধীদের হাতে পড়লে মারাত্মক ঝুঁকি তৈরি হত।"

বিবিসি বাংলার আরো খবর:

বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির: ধর্মগুরুর পদক্ষেপ নিয়ে বিতর্ক

ভাইকিংদের শেষকৃত্যের পোশাকে কেন 'আল্লাহ' লেখা?

ছবির কপিরাইট Kent Police
Image caption মি. বুশেলের আগুনে পোড়া বাড়ি।

সম্পর্কিত ইন্টারনেট লিঙ্ক

ইন্টারনেটে অন্যান্য সাইটের জন্য বিবিসি দায়বদ্ধ নয়