আদালতে জেরার জবাবে মুখ খুললেন প্যারিসের একমাত্র জীবিত 'হামলাকারী'

সালাহ্ আবদেলসালাম আদালতের সাথে সহযোগিতা করতে অস্বীকিৃতি জানিয়েছেন। ছবির কপিরাইট AFP/Getty
Image caption সালাহ্ আবদেলসালাম আদালতের সাথে সহযোগিতা করতে অস্বীকিৃতি জানিয়েছেন।

প্যারিসে ২০১৫ সালের নভেম্বরে সন্ত্রাসী হামলার একমাত্র জীবিত সন্দেহভাজন আদালতে তার নীরবতা ভেঙ্গে কথা বলেছেন।

বেলজিয়ামের এক আদালতে সালাহ আব্দেস সালামের বিচার শুরু হয়েছে।

প্যারিসের ঐ সন্ত্রাসী হামলায় ১৩০ জন নিহত হয়। শত শত মানুষ ঐ ঘটনায় আহত হন।

বিচারের শুনানির প্রথম দিনে সালাহ আব্দেস সালাম আদালতে বলেন, মুসলিমদের সাথে 'নির্দয় আচরণ' করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, পালানোর সময় বেলজিয়ান পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে তার সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ নিয়ে তিনি যে এতদিন কোনো কথা বলেননি, তাতে প্রমাণ হয়না যে তিনি কোন অপরাধে জড়িত ছিলেন।

"আমার নীরবতা মানেই আমি অপরাধী, তা নয়। এটা আমার প্রতিরক্ষা," তিনি বলেন।

আল্লাহ ও রসুলের ওপর ভরসা করে আছেন বলে তিনি আদালতে জানান।

ফরাসি কৌঁসুলিরা মনে করছেন, সালাহ আব্দেস সালাম প্যারিস হামলায় গুরুত্ত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

ঐ হামলার পর তিনি ইউরোপের সবচেয়ে গুরুত্ত্বপূর্ণ ফরারি আসামিতে পরিনত হন।

হামলার চার মাস পর পুলিশ বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলস থেকে তাকে আটক করা হয়।

ঐ হামলায় তার ভাই ব্রাহিমিও নিহত হন।

ছবির কপিরাইট Belgian/French police
Image caption সালাহ্ আবদেলসালামকে ২০১৬ সালের মার্চে আটক করা হয়।

আরও দেখুন:

কেন বন্ধ হয়ে গেল ভ্যাট ফাঁকি রোধের অ্যাপ

মেয়ের চিকিৎসার টাকা যোগাতে বুকের দুধ বিক্রি?