যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় স্কুল হত্যাকাণ্ডের দিনের নায়করা

ছবির কপিরাইট EPA
Image caption স্টোনম্যান হাই স্কুলের বাইরে

কোচ ফেজ

ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডে বুধবার যেসব স্কুলে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে একজন বন্দুকধারী ১৭ জনকে হত্যা করে তার একটির ফুটবল কোচ অ্যারন ফেজ।

প্রাণে বাঁচা ছাত্ররা বলছেন, তাদের কোচ সেদিন 'হিরো' বা নায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন। গুলির মুখে ছাত্রদের বাঁচাতে নিজের শরীর দিয়ে তাদের আড়াল করেছিলেন তিনি।

ইনস্টাগ্রামে কোচ ফেজের ছবি দিয়ে স্কুলের এক ছাত্র লিখেছে, "ভদ্র মহোদয় এবং ভদ্র মহিলাগণ, দেখুন একজন নায়কের মুখ"।

মেজরিটি স্টোনম্যান হাই স্কুলের এই ফুটবল কোচ একজন ছাত্রকে তার শরীর দিয়ে আড়াল করে বাঁচাতে গিয়ে গুলিতে মারাত্মক জখম হয়েছেন। তিনি এখন হাসপাতালে।

ছবির কপিরাইট INSTAGRAM
Image caption ইনস্টাগ্রামে কোচ অ্যারন ফেজের প্রতি কৃতজ্ঞতা

স্টোনম্যান স্কুল থেকে পাশ করে মি. ফেজ নব্বইয়ের দশক থেকে কোচ হিসাবে সেখানেই কাজ করছেন। শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা এখন তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

স্থানীয় এক পত্রিকায় তার সহকর্মী এ্যান্ড্রু হফম্যান বলেছেন, "অ্যারন একজন চুপচাপ ধরণের মানুষ, কিন্তু স্কুলের নিরাপত্তা নিয়ে কোনো আপোষ সে করেনা"।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption হামলাকারিকে ধরার পর শিক্ষার্থীদের নিয়ে বেরিয়ে আসছেন শিক্ষকরা

এটা কি সত্য?

মাত্র ছ সপ্তাহ আগে স্কুলে মহড়া হয়েছিলো - কোনো বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটলে কী করতে হবে।

বুধবার যখন প্রথম গুলি হয়, শিক্ষক মেলিসা ফাকোস্কি ভেবেছিলেন মহড়া বোধ হয় এখনও শেষ হয়নি। "আমাদের কেউ কেউ ভেবেছিলেন মহড়ার চূড়ান্ত পর্ব হয়তো চলছে।"

কিন্তু কিছুক্ষণ পর যখন তিনি বুঝতে পারলেন এটা সত্যিকারের হামলা, তার মাথায় প্রথম চিন্তা ঢোকে যে ছাত্রদের বাঁচাতে হবে।

দ্রুত ক্লাসরুমের একটি আলমারির ভেতর ১৯ ছাত্রকে ঢুকিয়ে দেন তিনি। তারপর পুলিশ আসা পর্যন্ত ৪০ মিনিট অপেক্ষা করতে থাকেন।

"মহড়া থেকে যা শিখেছিলাম তা কাজে লাগিয়েছিলাম সেদিন। না হলে কী করতাম জানিনা"।

প্রমান দাও যে তুমি পুলিশ

ছবির কপিরাইট EPA
Image caption শিক্ষার্থীদের সান্ত্বনা দিচ্ছেন অভিভাবকরা

জিম গার্ড নামে আরেক শিক্ষক কজন ছাত্র-ছাত্রীকে ক্লাসরুমে লুকিয়ে রেখেছিলেন।

গুলির আওয়াজ পাওয়ার সাথে সাথে অংকের এই শিক্ষক রুমের দরজা বন্ধ করে দেন।

"আমি শুনতে পাচ্ছিলাম পুলিশ করিডোর দিয়ে এগিয়ে আসছে।," মি গ্রাড সিএনএনকে বলেন, "পুলিশ দরজার ধাক্কা দিচ্ছিলো"।

কিন্তু প্রশিক্ষণে মি. গ্রাড শিখেছিলেন হঠাৎ কাউকে বিশ্বাস না করতে।

"স্পেশাল ফোর্স যখন ক্লাসরুমের কাছে এলো, আমি আমার ছাত্রদের আলমারির মধ্যে ঢুতে যেতে বললাম। তারপর একটি কাগজ দিয়ে জানালা ঢেকে পুলিশকে পরিচয় দিতে বললাম"।

"তারা যখন বললো তারা পুলিশ, আমি প্রমাণ চাইলাম। তারা যখন বাইরে থেকে তাদের পরিচয়পত্র দেখালো, শুধু তখনই আমি দরজা খুলি"।

সম্পর্কিত বিষয়