সৌদি আরবে সেনাপ্রধানসহ শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের বরখাস্ত করলেন বাদশাহ সালমান

মধ্যরাতে বাদশাহ সালমানের নামে কয়েকটি রাজকীয় ডিক্রি জারির মাধ্যমে সেনাবাহিনীতে পরিবর্তন আনা হয় ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption মধ্যরাতে বাদশাহ সালমানের নামে কয়েকটি রাজকীয় ডিক্রি জারির মাধ্যমে সেনাবাহিনীতে পরিবর্তন আনা হয়

মধ্যরাতে রাজকীয় ডিক্রি জারি করে শীর্ষ কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছেন সৌদি আরবের বাদশাহ। বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তাদের মধ্যে রয়েছে সেনাপ্রধানসহ বেশ কয়েকজন শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা।

ইয়েমেনে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি জোটের লড়াইয়ের তিনবছর পূর্তির আগে আগে এই রদবদলের ঘটনা ঘটলো।

বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তাদের মধ্যে সৌদি আরবের সেনাপ্রধানসহ রয়েছেন বিমান বাহিনী, পদাতিক বাহিনী এবং বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধানরাও।

মধ্যরাতে বাদশাহ সালমানের নামে কয়েকটি রাজকীয় ডিক্রি জারির মাধ্যমে এই পরিবর্তন আনা হয়।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, রাজকীয় এসব সিদ্ধান্তের পেছনে রয়েছেন যুবরাজ মোহামেদ বিন সালমান।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থায় এই খবর প্রকাশিত হলেও, এর কোন কারণ জানানো হয়নি। দেশটিতে বেশ কয়েকজন নতুন উপ মন্ত্রীও নিয়োগ দেয়া হয়েছে, যাদের মধ্যে একজন নারী মন্ত্রীও রয়েছেন।

ইয়েমেনে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি জোটের লড়াইয়ের তিন বছর পূর্তির ঠিক আগে আগে দেশটির সামরিক বাহিনীতে এই রদবদলের ঘটনা ঘটলো।

গত বছর যুবরাজ সালমানের দুর্নীতি বিরোধী অভিযানেই বেশ কয়েকজন পরিচিত সৌদি নাগরিক, প্রিন্স, মন্ত্রী আর কোটিপতিদের রিয়াদের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে বন্দী করা হয়েছিল।

বিবিসির সংবাদদাতারা বলছেন, বাদশাহের ক্ষমতার প্রতীক হিসাবে পরিচিত প্রতিষ্ঠানগুলোয় এটি আরেক দফা সংস্কার চালানো হল, যদিও এসব পদক্ষেপের পেছনে তার পুত্র এবং উত্তরাধিকারী যুবরাজ সালমান রয়েছেন। ইয়েমেনে সৌদি জোটের অভিযানও যুবরাজের সিদ্ধান্তে হয়েছিল, যা দৃশ্যত ব্যর্থ হয়েছে।

কিন্তু এসব পদক্ষেপের মাধ্যমে তিনি পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, দেশটির প্রচলিত অনেক রীতিনীতি তিনি ভাঙ্গতে চলেছেন।

সম্পর্কিত বিষয়