ট্রাম্পের জামাতার ক্ষমতা কেন খর্ব করা হল

জ্যারেড কুশনার

ছবির উৎস, EPA

ছবির ক্যাপশান,

জ্যারেড কুশনার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনারের ক্ষমতা খর্ব করা হয়েছে। এত দিন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা হিসেবে অতি গোপনীয় যেসব গোয়েন্দা রিপোর্ট তিনি পেতেন- এখন থেকে সেগুলো আর তিনি পাচ্ছেন না।

এমন খবর নিশ্চিত করেছে মার্কিন গণমাধ্যম।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিনিয়র এডভাইজার হিসেবে মিঃ ট্রাম্পের প্রতিদিনের অতি গোপনীয় গোয়েন্দা রিপোর্ট পাবার ক্ষমতা ছিল জ্যারেড কুশনারের।

তাঁর সেই ক্ষমতাকে খর্ব করা হয়েছে বলে খবর মার্কিন মিডিয়ার।

তাঁর পূর্ব ইতিহাস বিষয়ে সব তথ্য জানার কাজ শেষ না হওয়ায় এ ধরনের গোপনীয় রিপোর্ট পাবার যে সাময়িক অধিকার তাকে দেয়া হয়েছিল- তা বন্ধ করা হয়েছে।

গণমাধ্যমকে এটি নিশ্চিত করেছেন মিঃ কুশনারের আইনজীবী অ্যাবে লওইল।

ছবির উৎস, Reuters

ছবির ক্যাপশান,

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিনিয়র এডভাইজার হিসেবে মিঃ ট্রাম্পের প্রতিদিনের অতি গোপনীয় গোয়েন্দা রিপোর্ট পাবার ক্ষমতা ছিল জ্যারেড কুশনারের।

তবে শীর্ষ গোয়েন্দা রিপোর্ট না পেলেও মি. কুশনারের গুরুত্বপূর্ণ কাজে কোনো প্রভাব পরবে না বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

গোপনীয়তা রক্ষার বিষয়ে হোয়াইট হাউজ আরো যে শৃঙ্খলা আরোপ করছে- এ সিদ্ধান্ত তারই প্রমাণ বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এর আগে প্রেসিডেন্টের চিফ অব স্টাফ জন কেলি জানিয়েছিলেন যে, শীর্ষ নিরাপত্তা অনুমোদন পাওয়া ব্যক্তিদের তালিকা আরো সংক্ষিপ্ত করা হবে।

রাজনীতিতে অনভিজ্ঞ মিঃ কুশনার উপদেষ্টার পদ পাবার পর কিছু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও পেয়েছিলেন।

তিনি। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রচেষ্টা বা মেক্সিকোর সাথে সম্পর্ক রক্ষার মতো বিষয়গুলোতেও তাঁর স্থায়ী নিরাপত্তা অনুমোদন না পাওয়া সমস্যার সৃষ্টি করছিল।

এছাড়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ সংশ্লিষ্টতায় রাশিয়ার সাথে সম্পর্ক নিয়ে আগে থেকেই সমালোচিত ছিলেন মিঃ ট্রাম্পের জামাতা মিঃ কুশনার।

আরো পড়ুন: