মিশরে সেই নিখোঁজ জুবেইদার মা-কে আটক করা হয়েছে

Image caption জুবেইদা'র মা

মিশরের জুবেইদা নামে এক তরুণীর মা - যিনি বিবিসির কাছে তার মেয়ের রহস্যজনকভাবে উধাও হয়ে যাওয়া এবং নির্যাতিত হবার কথা বলেছিলেন - তাকে আজ 'মিথ্যা খবর ছড়ানোর' অভিযোগে গ্রেফতার করেছে কর্তৃপক্ষ।

কর্মকর্তারা বলেছেন, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৫ দিনের জন্য আটক করা হয়েছে।

জুবেইদার উধাও হওয়া নিয়ে বিবিসির রিপোর্ট পড়ুন এখানে:

মিশরে কেন মানুষ 'রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ' হয়ে যায়

এই মহিলার মেয়ে জুবেইদা ২০১৭ সালের এপ্রিল মাস থেকে নিখোঁজ ছিলেন। কিন্তু গত সোমবার সেই জুবেইদা মিশরের একটি টিভি চ্যানেলের টক-শোতে হাজির হন এবং তাকে আটক বা কোন রকম নিপীড়নের কথা অস্বীকার করেন।

মিশরের রাষ্ট্রীয় তথ্য কর্তৃপক্ষ এ রিপোর্টের জন্য বিবিসিকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করে বলেছে, এটি ছিল সম্পূর্ণ মিথ্যা ও অতিরঞ্জিত।

ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption জুবেইদা

বিবিসি জবাবে বলেছে, তারা তাদের রিপোর্টের বস্তুনিষ্ঠতার পক্ষে অবস্থান নিচ্ছে এবং এ অভিযোগ নিয়ে ভবিষ্যতে মিশরের কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হবে।

মিশরের রাষ্ট্রীয় আল-আহরাম পত্রিকা বলছে, জুবেইদার মায়ের বিরুদ্ধে মিথা খবর প্রকাশ ও প্রচারের অভিযোগ আনা হয়েছে যা রাষ্ট্রীয় স্বার্থের ক্ষতি করতে পারে। তার বিরুদ্ধে একটি নিষিদ্ধ গোষ্ঠীতে যোগদানের অভিযোগও আনা হয় - তবে গোষ্ঠীর কোন নাম বলা হয় নি।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption প্রেসিডেন্ট আল সিসি

টিভিতে জুবেইদার আবির্ভাবের পর মঙ্গলবার তার মা তুরস্কভিত্তিক একটি মুসলিম ব্রাদারহুড-সমর্থক টিভি চ্যানেলকে বলে, "আমি বিবিসিকে যা বলেছি তাই সত্য, এবং আমার মেয়েকে জোর করে টিভিতে দেখানো হয়েছে।"

এর একদিন আগেই মিশরের প্রেসিডেন্ট আবতুল ফাত্তাহ আল সিসি বলেন, দেশের নিরাপত্তা বাহিনীগুলোকে কোনভাবে অবমাননা করা রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল।

তিনি বলেন, সেনাবাহিনী বা পুলিশের সম্মানহানি করা সকল মিশরীয়ে অসম্মান করার সামিল এবং এটাকে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বলা যায় না।

আরো পড়তে পারেন:

প্রায় একশ' বছর বয়েসে সাঁতারের বিশ্বরেকর্ড!

যৌন নির্যাতন: অভিযোগ করলেই বালক দুষ্ট হয়?

মডেলের শিশুকে স্তন্যদানের ছবি নিয়ে ভারতে বিতর্ক

গবেষণা: দু'ধরণের নয়, ডায়াবেটিস আসলে পাঁচ ধরণের

সম্পর্কিত বিষয়