কাঠমান্ডুতে ১৭ বাংলাদেশী যাত্রীর মরদেহ সনাক্ত

ভেঙ্গে পড়েছেন স্বজনরা ছবির কপিরাইট Prakash Mathema
Image caption ভেঙ্গে পড়েছেন স্বজনরা

কাঠমান্ডুতে ইউএস বাংলা ফ্লাইট বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ২৬ জন বাংলাদেশির মধ্যে ১৪ জনের পরিচয় সনাক্ত করা হয়েছে।

দুর্ঘটনার পাঁচদিন পর ফরেনসিক পরীক্ষা এবং ময়না তদন্ত শেষ করে নেপাল ও বাংলাদেশের চিকিৎসকদের যৌথ দলের পক্ষ থেকে নিহত ১৪ জন বাংলাদেশি, ৯ জন নেপালি এবং একজন চীনা নাগরিকের নাম ঘোষণা করা হয়।

স্বজনরা দেখে নিশ্চিত করলে তাদের হাতে মৃতদেহ হস্তান্তর করা হবে।

নিহত ১৭ জন বাংলাদেশী নাগরিকের নাম :

১ অনিরুদ্ধ জামান ২. মো রফিকুজ্জামান ৩. তাহিরা তানভিন শশী রেজা ৪. মিনহাজ বিন নাসির ৫. মো মতিউর রহমান ৬. মোসাম্মাৎ আখতারা বেগম ৭. মো হাসান ইমাম ৮. তামারা প্রিয়ন্ময়ী ৯.এস এম মাহমুদুর রহমান ১০. আবিদ সুলতান (পাইলট) ১১. পৃথুলা রশিদ (কো-পাইলট) ১২. খাজা হোসেন মো সাফি ১৩. বিলকিস আরা ১৪. মো নুরুজ্জামান ১৫. ফয়সল আহমেদ ১৬. মো. রকিবুল হাসান ১৭. সানজিদা হক

কাঠমান্ডুর একটি হাসপাতালে উপস্থিত স্বজন ও সাংবাদিকদের সামনে এই নামগুলো পড়ে শোনান বাংলাদেশ থেকে যাওয়া চিকিৎসক ড সোহেল মাহমুদ।

তিনি জানান ১০/১২টি মরদেহে এতটাই পুড়ে গেছে যে তাদের সনাক্ত করতে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। এ কাজে বেশ কদিন সময় লাগতে পারে।

ওদিকে আহত আরও একজন বাংলাদেশিকে কাঠমান্ডু থেকে ঢাকায় আনা হয়েছে। এ নিয়ে গত তিনদিনে মোট পাঁচজনকে ঢাকায় এনে ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

কাঠমান্ডু থেকে ড হোসেন ইমাম বিবিসিকে জানিয়েছেন গুরুতরভাবে পোড়া দুজন বাংলাদেশির একজনকে দিল্লি এবং অন্যজনকে সিঙ্গাপুরে পাঠানোর ব্যবস্থা হচ্ছে। ড মাহমুদ বিবিসিকে বলেন, পোশাক, ফিঙ্গার প্রিন্ট এবং খালি চোখে দেখে তারা এই মরদেহগুলো সনাক্ত করেছেন।