আট হাজারের তালিকা দিলেও মাত্র ছয়শ রোহিঙ্গাকে গ্রহণ করতে রাজী মিয়ানমার

ছবির কপিরাইট BBC BANGLA
Image caption এভাবেই দলে দলে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে এসেছিলো

মিয়ানমারের ইমিগ্রেশন ও পপুলেশন ডিপার্টমেন্টের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন তারা বাংলাদেশ থেকে ৬৭৫ জন শরণার্থীকে ফেরত নিতে প্রস্তুত আছে।

ওই কর্মকর্তার নাম মিন্ট কায়িং এবং তিনি ওই দপ্তরের স্থায়ী সচিব।

পাঁচ লক্ষ রোহিঙ্গার বাংলাদেশে পালানোর কথা স্বীকার বার্মার

কীভাবে বদলে গেল ফয়সাল ও নাজিয়ার মরদেহ?

ফেসবুকের ৮কোটি ৭০ লাখ মানুষের তথ্যফাঁস

মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম মিজিমায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মিস্টার কায়িংকে নিশ্চিত করেছেন যে বাংলাদেশ থেকে ৮ হাজার ৩২ জনের তালিকা দেয়া হলেও তারা এর মধ্যে আটশ জনেরও মতো রোহিঙ্গার নাম অনুমোদন করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন যে বিষয়টি ইতোমধ্যে বাংলাদেশকেও জানিয়ে দিয়েছেন তারা।

ছবির কপিরাইট BBC BANGLA
Image caption বাংলাদেশ সরকার বলছে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে আছে

যে আটশ জনের নাম মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ অনুমোদন করেছেন মিস্টার কায়িং এর দাবি এর মধ্যে ৬৮৫ জন মিয়ানমারে বসবাস করতো আর দশজনের মতো আছে যারা সেখানকার সহিংসতায় অংশ নিয়েছে।

তিনি বলছেন, "তালিকায় থাকা দশজন সন্ত্রাসীকে বাদ দিয়ে ৬৭৫ জনকে আমরা গ্রহণ করবো। আটশ জনের মধ্যে আর বাকী ১২০ জন বাংলাদেশে যাওয়ার আগে মিয়ানমারে বসবাস করতো এমন কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি"।

এর আগে বাংলাদেশ মিয়ানমার আলোচনার পর বাংলাদেশের তরফ থেকে আট হাজার জনের একটি তালিকা মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছিলো।

সম্পর্কিত বিষয়