হরিণ শিকার মামলায় বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের পাঁচ বছরের জেল

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption আদালতে দোষী সাব্যস্ত হলেন সালমান খান

ভারতের একটি আদালত ১৯৯৮ সালে দুটি কৃষ্ণসার প্রজাতির হরিণ শিকার মামলায় বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে দোষী সাব্যস্ত করে পাঁচ বছরের জেল দিয়েছে ।

একই সঙ্গে তাকে দশ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়েছে।

রায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর তাকে জেলে নেয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

তবে তিনি আপিল করতে পারবেন।

তাকে অন্তত পাঁচদিন জেলে থাকতে হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

তবে বলিউড তারকা সাইফ আলী খান, সোনালি বান্দ্রে, নিলম ও টাবুকে খালাস দিয়েছে আদালত।

হরিণ শিকারের মামলা বিস্তারিত জানতে পড়ুন

প্রায় বিশ বছর বয়সী পুরনো এই মামলার আদেশ দিয়েছেন যোধপুরের ডিসট্রিক্ট প্রিজাইডিং অফিসার দেবকুমার খাত্রী।

আদেশ দেয়ার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন সাইফ আলী কান, সোনালি বান্দ্রে, নিলম ও টাবু।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption অসংখ্য ভক্ত রয়েছে সালমান খানের
ছবির কপিরাইট AFP
Image caption বহু ব্যবসা সফল ছবির নায়ক সালমান খান

এ মামলায় আরও দুজন অভিযুক্ত ছিলেন -ট্রাভেল এজেন্ট দশায়ন্ত সিং ও সালমানের সহকারী দিনেশ গাউরে।

মিস্টার গাউরে অবশ্য এখনো পলাতক।

সালমান খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিলো যে তিনি ১৯৯৮ সালের ১ ও ২ অক্টোবর যোধপুরের কাছে কানকানি গ্রামে দুটি বিরল প্রজাতির হরিণ শিকার করেছেন।

সালমানসহ উল্লেখিত অভিনেতা অভিনেত্রীরা সেখানে একটি হিন্দি ছবির শুটিংয়ে গিয়েছিলেন।

৫২ বছর বয়সী সালমান আগেই এ মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেছেন হরিণ দুটি প্রাকৃতিক কারণেই মারা গেছে।

বিবিসি বাংলায় আরও পড়ুন :

সৌদি আরবে দুই সপ্তাহের মধ্যেই চালু হচ্ছে সিনেমা হল

কৃত্রিম মেঘ তৈরি করে সূর্যকে আটকানোর চেষ্টা

কীভাবে বদলে গেল ফয়সাল ও নাজিয়ার মরদেহ?

সম্পর্কিত বিষয়