জাপানে নিজের ছেলেকে ২০ বছর কাঠের খাঁচায় বন্দী করে রাখলেন বাবা

জাপানের পুলিশ অফিসারের পোশাক ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption ছেলেকে ২০ বছর খাঁচায় আটকে রাখার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে জাপানের পুলিশ

কাঠের খাঁচায় নিজের ছেলেকে আটকে রাখার অভিযোগে ৭৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে আটক করেছে জাপানের পুলিশ।

জাপানের সরকারি সম্প্রচারমাধ্যম এনএইচকের কর্মকর্তাদের কাছে ইয়োশিতানে ইয়ামাসাকি বলেছেন, তাঁর ছেলেকে তিনি আটকে রাখেন কারণ মানসিক সমস্যা দেখা দেয়ার কারণে তাঁর ছেলে মাঝেমধ্যে হিংস্র আচরণ করতো। এখন তার ছেলের বয়স ৪২।

মি. ইয়ামাসাকি যেই খাঁচায় তার ছেলেকে আটকে রাখেন সেটি উচ্চতায় ১মিটার ও চওড়ায় ২ মিটারের কম। খাঁচাটি সান্ডা শহরে মি.ইয়ামাসাকির বাসার পাশে রাখা থাকতো।

তার ছেলে বর্তমানে শহরের কর্তৃপক্ষের কাছে আছে। দীর্ঘদিন খাঁচায় বন্দী থাকার কারণে তিনি পিঠের সমস্যায় ভুগছেন।

স্থানীয় গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী জানুয়ারি থেকে পশ্চিম জাপানের সমাজ কল্যাণ বিভাগের তদারকিতে রয়েছেন তিনি।

সান্ডা শহর কর্তৃপক্ষের একজন কর্মকর্তা মি. ইয়ামাসাকির বাসায় দেখা করতে গেলে কর্তৃপক্ষ ৪২ বছর বয়সী ঐ ব্যক্তির বন্দি থাকার ঘটনা সম্পর্কে জানতে পারে।

তদন্তকারীরা মনে করছে মি. ইয়ামাসাকি তার মানসিকভাবে অসুস্থ ছেলেকে ১৬ বছর বয়স থেকেই বন্দী করে রাখা শুরু করে। ঐ সময় থেকে তার মধ্যে মানসিক অসুস্থতার লক্ষণ প্রকাশ হওয়া শুরু করে।

আপাতত ছেলেকে ১৮ই জানুয়ারি ৩৬ ঘন্টা আটকে রাখার দায়ে অবসর ভাতায় জীবনযাপন করা মি. ইয়ামাসাকিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী মি. ইয়ামাসাকি তার নামে আনা অভিযোগ স্বীকার করেছেন। তিনি কর্তৃপক্ষকে বলেছেন যে তার ছেলেকে তিনি প্রতিদিন খাবার দিয়েছেন ও গোসল করার সুযোগও দিয়েছেন।

আরো পড়তে পারেন:

সুপারস্টার সালমান খানের বেলায় ভিন্ন বিচার?

সৌদি যুবরাজের হলিউড সফর কেমন হলো

সিরিয়া থেকে কেন সৈন্য ফেরাতে পারছে না যুক্তরাষ্ট্র?

সম্পর্কিত বিষয়