ইউটিউবের বিরুদ্ধে শিশু সুরক্ষা আইন ভঙ্গের অভিযোগ

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption শিশু সুরক্ষা আইন ভেঙেছে ইউটিউব

ইউটিউব ১৩ বছরের কম বয়সী শিশুদের তথ্য সংগ্রহ করছে এমন অভিযোগে এনে তারা দেশটির কেন্দ্রীয় বাণিজ্য পরিষদে মামলা দায়ের করে। তাদের অভিযোগ, বাবা মায়ের সম্মতি ছাড়াই শিশুদের ইউটিউব অ্যাকাউন্ট খুলতে উৎসাহিত করছে ইউটিউব।

যুক্তরাষ্ট্রে শিশুদের অনলাইন গোপনীয়তা রক্ষার যে প্রচলিত আইন রয়েছে তার কোন শর্ত ইউটিউব মানছে না বলে অভিযোগ ওই ভোক্তা অধিকার সংস্থাগুলোর।

ছবির কপিরাইট PA
Image caption ১৩ বছরের কম বয়সী শিশুরা ঝুঁকে পড়ছে ইউটিউব ব্যবহারে।

আইনানুযায়ি, শিশুদের জন্য কোন ওয়েবসাইট চালাতে গেলে বিশেষ করে শিশুদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের আগে তাদের বাবা মায়ের অনুমোদন নিতে হয়। অথচ ইউটিউব কোন সম্মতি ছাড়াই শিশুদের অবস্থান, তাদের ব্রাউজিং অভ্যাস সবকিছু বিশ্লেষণ করছে।

অনেকে নার্সারি রাইম, কার্টুন, খেলনার বিজ্ঞাপনসহ আরো বিভিন্ন বিষয়ের ওপর আলাদা চ্যানেল খুলে বসেছে। শিশুদের কিভাবে ইউটিউবের প্রতি আকর্ষণ করা যায় সে সংক্রান্ত ভিডিও টিউটোরিয়ালেরও কোন অভাব নেই। শিশুদের ওই সব চ্যানেলে অসংলগ্ন ভিডিও লিংক চলে আসারও অভিযোগ করেছে ভোক্তা অধিকার সংস্থাগুলো।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ইউটিউব শিশুদের জন্য নয় বলে জানিয়েছে গুগল।

অথচ গুগল এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলো, ইউটিউব শিশুদের জন্য নয়। এখানে অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে বয়স নূন্যতম ১৩ বছর বয়স হতে হবে।

ইউিটিউবের বিরুদ্ধে আইন লঙ্ঘণের অভিযোগের বিষয়ে গুগল কর্তৃপক্ষ জানান, তারা প্রতিটি অভিযোগ মূল্যায়ণ শেষে নিজেদের ভুল শুধরে আরো ভালো কিছু করার ওপর জোর দেবেন।

আরো পড়ুন:

বাজে ভিডিও ব্লগারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে ইউটিউব

অনলাইন ব্যবহারে শিশুদের ঝুঁকি বাড়ছে: ইউনিসেফ

শিশু ও তাদের পরিবারের স্বার্থরক্ষা গুগলের অগ্রাধিকার উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তারা শিগগিরই শিশুদের জন্য উপযুক্ত অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করবে।