ফেসবুক লাইভ করার সময় নিকারাগুয়ায় গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক

ছবির কপিরাইট এএফপি
Image caption বুধবার থেকে নিকারাগুয়ায় চলছে বিক্ষোভ

নিকারাগুয়ায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভ টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারের সময় একজন সাংবাদিককে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।

অ্যাঞ্জেল গাহোনা নামে ঐ রিপোর্টার সে সময় ক্যারিবিয়ান কোস্টের শহর ব্লুফিল্ডসের এক ব্যাংকে ক্ষয়ক্ষতির অবস্থা নিয়ে ফেসবুকে লাইভ করছিলেন।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ছেন এবং রক্ত গড়িয়ে পড়ছে চারপাশে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, গুলিবিদ্ধ হবার আগ মূহুর্তে মিঃ গাহোনা ব্যাংকের একটি ভাঙা ক্যাশ মেশিনের বর্ণনা দিচ্ছিলেন।

চারপাশ থেকে সেসময় তার নাম ধরে চিৎকার করে ডাকতে শোনা যায় মানুষকে এবং সাহায্যের জন্য অনেকে এগিয়ে আসেন।

তবে গুলি কোথা থেকে আসে বা কে গুলি করেছে তা এখনো চিহ্নিত হয়নি।

ছবির কপিরাইট এএফপি
Image caption ড্যানিয়েল ওর্তেগা ও তার স্ত্রী

২০১৬ সালের নির্বাচনে মিঃ ওর্তেগা প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

পেনশন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার পর গত বুধবার থেকে প্রেসিডেন্ট ড্যানিয়েল ওর্তেগার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হবার পর থেকে এ পর্যন্ত ১০ জনের বেশি মানুষ মারা গেলেন।

পেনশন সংস্কারের ফলে এখন কর্মী এবং নিয়োগকর্তা উভয়কেই বেশি অর্থ দিতে হবে।

কিন্তু সামগ্রিকভাবে পেনশন সুবিধা পাঁচ শতাংশ কমে যাবে।

মিঃ ওর্তেগা বিক্ষোভকারীদের আলোচনার প্রস্তাব দিলেও, আন্দোলনকারীরা তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

আরো পড়ুন:রানা প্লাজা ট্রাজেডি: বিচার এখনো কত দূরে?

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে নিয়ে বিজেপি'র ভাবনা কী

তাদের দাবী আগে পুলিশকে সহিংসতা বন্ধ করতে হবে।

বিক্ষোভকারীরা সরকারী ভবনে আগুন ধরিয়ে দেয়।

বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সরকারী ভবনে নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

দেশটির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুলিশের হামলায় শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

পোপ ফ্রান্সিস সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন।

দেশটির একটি মানবাধিকার সংগঠন বলছে, সহিংসতায় মৃত্যুর সংখ্যা ২৫ জন ছাড়িয়ে গেছে।