নিজের স্বাস্থ্য সনদ নিজেই লিখেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, দাবি সাবেক চিকিৎসকের

২০১৫ সালের ওই চিঠিতে লেখা হয়েছিল, ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য অসাধারণ ছবির কপিরাইট EPA
Image caption ২০১৫ সালের ওই চিঠিতে লেখা হয়েছিল, ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য অসাধারণ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক চিকিৎসক বলছেন, ২০১৫ সালে তখনকার রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য 'অবাক করার মতো চমৎকার' বলে যে চিকিৎসা সনদ দেয়া হয়েছিল, সেটি তিনি নিজে লেখেননি।

''তিনি (মি.ট্রাম্প) নিজেই সেটির নির্দেশনা দিয়েছিলেন'', সিএনএন টেলিভিশনকে বলেছেন চিকিৎসক হ্যারল্ড বোর্নস্টেইন।

২০১৫ সালের ওই চিঠির বক্তব্য ছিল যে, 'এতদিন যতজন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছে, তাদের মধ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য সবচেয়ে ভালো।'

ওই চিঠিতে লেখা ছিল যে, ''মি. ট্রাম্পের শারীরিক শক্তি এবং কর্মক্ষমতা অসাধারণ। তার রক্তের চাপ এবং গবেষণাগারের প্রতিবেদন অবাক করার মতো চমৎকার। পুরো বছর জুড়ে তিনি ৭ কেজি ওজন কমিয়েছেন। মি. ট্রাম্পের ক্যান্সারের কোন লক্ষণ নেই বা জয়েন্ট সার্জারি হয়নি।''

সে সময় টুইট করে মি. ট্রাম্প বলেছিলেন, ''আমি ভাগ্যবান যে, আমার শরীরে সেরা জিন রয়েছে।''

তবে এখন মি. বোর্নস্টেইন বলেছেন, তাকে যেভাবে বলা হয়েছে, তিনি শুধুমাত্র সেভাবে ওই চিকিৎসা সনদটি বানিয়েছিলেন। সেটি তার পেশাদার বিশ্লেষণ ছিল না।

যদিও তার এই বক্তব্যের বিষয়ে এখনো কোন মন্তব্য করেনি হোয়াইট হাউজ।

আরো পড়তে পারেন:

ট্রাম্পের বোধশক্তি যাচাইয়ের টেস্টে পাশ করবেন তো?

ট্রাম্প 'নৈতিকভাবে' প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য: কোমি

ডোনাল্ড ট্রাম্প কি আজীবন প্রেসিডেন্ট থাকতে চান?

Image caption ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক চিকিৎসক বলছেন, মি. ট্রাম্পের স্বাস্থ্য সনদ তিনি নিজের সিদ্ধান্তে লেখেননি

মি. বোর্নস্টেইন আরো বলেছেন, ১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মি. ট্রাম্পের দেহরক্ষী একদিন তার অফিসে এসে 'অভিযান চালিয়ে' তার চিকিৎসা সংক্রান্ত সব কাগজপত্র নিয়ে গেছে।''

কিন্তু কেন এতদিন পরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক এই চিকিৎসক এখন এই দাবি করছেন, তা পরিষ্কার নয়।

গত জানুয়ারিতে মানসিক সুস্থতা নিয়ে বিতর্কের জের ধরে তিন ঘণ্টা ধরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

এরপর তার হোয়াইট হাউজ চিকিৎসক রনি জ্যাকসন বলেছিলেন, ''তার মস্তিষ্কের দক্ষতা নিয়ে আমার কোন সন্দেহ নেই।''

বিবিসি বাংলার অন্যান্য খবর:

শব-ই-বরাতে হালুয়া-রুটির প্রচলন হয়েছিল কিভাবে?

তাজমহলের রং বদল নিয়ে চিন্তিত ভারত

ডেটিং সার্ভিস চালু করতে যাচ্ছে ফেসবুক

'দিনে পাঁচবার যৌনমিলনও যথেষ্ট ছিল না'