রুশ-মার্কিন সমরাস্ত্র প্রতিযোগিতা : ফিরিয়ে আনা হচ্ছে বিলুপ্ত দ্বিতীয় নৌবহর

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption খরচ কমাতে দ্বিতীয় নৌবহর বিলুপ্ত করা হয়েছিল

রাশিয়াকে মোকাবেলার জন্য যুক্তরাষ্ট্র তাদের বিলুপ্ত করা দ্বিতীয় নৌবহর ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের চীফ অব ন্যাভাল অপারেশন এডমির‍্যাল জন রিচার্ডসন বলেছেন, ২০১১ সালে বিলুপ্ত করা দ্বিতীয় নৌবহর আবার নতুন করে গঠন করা হবে। এটি যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকুল এবং উত্তর আটলান্টিকে মোতায়েন করা হবে।

তিনি আরও বলেছেন, এ বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের যে নতুন প্রতিরক্ষা কৌশল প্রকাশ করা হয়েছে তাতে এটা পরিস্কার যে পৃথিবীতে বৃহৎ শক্তিধর দেশগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা ফিরে এসেছে। কাজেই রাশিয়া এবং চীনকে মোকাবেলার বিষয়টিকে এই নীতি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র তাদের দ্বিতীয় নৌবহর বিলুপ্ত করেছিল খরচ কমানো এবং অন্যান্য কাঠামোগত বিষয় বিবেচনায় রেখে।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption রুশ-মার্কিন সামরিক অস্ত্র প্রতিযোগিতা আবার বাড়ছে

বিবিসির প্রতিরক্ষা বিষয়ক সংবাদদাতা জোনাথান মার্কাস বলছেন, দ্বিতীয় নৌবহরকে ফিরিয়ে আনার এই সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তর প্রতিরক্ষা কৌশলের অংশ। যুক্তরাষ্ট্র সাম্প্রতিক দশকগুলিতে বিদ্রোহী তৎপরতা দমনের দিকেই বেশি মনোযোগ দিয়েছিল। কিন্তু এখন তারা মনোযোগ নিবদ্ধ করছে বড় বড় দেশগুলোর মধ্যে এখন যে প্রতিযোগিতা চলছে সেদিকে। বিশেষ করে রাশিয়ার দিকে।

রাশিয়া সম্প্রতি তাদের নৌশক্তি বাড়ানোর জন্য প্রচেষ্টা জোরদার করেছে। বাল্টিক সাগর, উত্তর আটলান্টিক মহাসাগর এবং আর্কটিক অঞ্চলে রাশিয়ার সামরিক তৎপরতা বাড়ছে।

কে এই দ্বিতীয় নৌবহরের কমান্ডার হবেন এই বহরে কি কি থাকবে তা এখনো ঠিক হয়নি।

রাশিয়া এবং পশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্ব বাড়ছে বহু বছর ধরে। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে নাক গলানোর অভিযোগ, সিরিয়ায় বাশার-আল-আসাদের প্রতি সমর্থন এবং ব্রিটেনে সাবেক রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপলের ওপর বিষ প্রয়োগের ঘটনা নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে পশ্চিমা দেশগুলোর সম্পর্কের ব্যাপক অবনতি ঘটে।