ট্রাম্প-কিম শীর্ষ বৈঠক হবে ১২ই জুন সিঙ্গাপুরে

যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়া ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption কিম জং আন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং আনের সাথে তার শীর্ষ বৈঠকটি হবে সিঙ্গাপুরে - জুন মাসের ১২ তারিখে।

এক টুইটার বার্তায় মি. ট্রাম্প বলেছেন, দুই নেতাই চেষ্টা করবেন যেন এ বৈঠকটি বিশ্বশান্তির জন্য একটা অনন্য মুহূর্ত হয়ে ওঠে।

শীর্ষ বৈঠকটির লক্ষ্য হবে ওয়াশিংটন এবং পিয়ংইয়ং-এর মধ্যে সামরিক উত্তেজনা কমিয়ে আনা, এবং উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচির একটা সম্ভাব্য সমাপ্তি নিয়ে আলোচনা করা।

উত্তর কোরিয়ার হাতে আটক থাকা তিনজন আমেরিকানের মুক্তির কয়েক ঘন্টা পরই মি. ট্রাম্পের দিক থেকে এ ঘোষণা এলো।

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে তারা তাদের পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দেবে এবং ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিও স্থগিত করবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাম্প প্রশাসন এর জন্য উত্তর কোরিয়ার ওপর জাতিসংঘের কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপকেই বার বার কৃতিত্ব দিয়েছে ।

তবে উত্তর কোরিয়া বলেছে, তাদের প্রশাসন এখন অর্থনৈতিক উন্নয়নের দিকে মনোযোগ নিবদ্ধ করছে বলেই তাদের অবস্থানের এ পরিবর্তন।

বিবিসি বাংলায় আরও পড়ুন:

সিরিয়ায় তীব্র আকার নিয়েছে 'ইসরায়েল-ইরান' যুদ্ধ

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের যে সাতটি তথ্য না জানলেই নয়

বাংলাদেশে কেন এত বেশি বজ্রপাত হয়?

মালয়েশিয়া নির্বাচন: মাহাথিরের জয়ের রহস্য

এর আগে উত্তর কোরিয়ায় আটক থাকা তিন আমেরিকান নাগরিকের মুক্তির পর তাদের ব্যক্তিগতভাবে স্বাগত জানান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

অ্যান্ড্রুজ বিমান ঘাঁটিতে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মিস্টার ট্রাম্প কিম হাক সং, টনি কিম এবং কিম ডং চোলকে "দারুণ মানুষ" বলে অভিহিত করেন।

তাদের মুক্তির পেছনে ভূমিকা রাখাকে তিনি সম্মানের বলেও উল্লেখ করেন। মুক্তি পাওয়া তিনজনের দু'জন উত্তর কোরিয়ায় ইভানজেলিকাল খ্রিস্টানদের প্রতিষ্ঠিত একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে কাজ করতেন। তৃতীয় ব্যক্তি ছিলেন একজন খ্রিস্টান যাজক।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও'র পিয়ংইয়ং সফরকালে তাদের মুক্তি দেয়া হয়।