ময়মনসিংহে 'নারী মাদক ব্যবসায়ীর' গুলিবিদ্ধ লাশ

বাংলাশ পুলিশ মাদকবিরোধী অভিযান ছবির কপিরাইট Allison Joyce
Image caption পুলিশ বলছে, গুলিবিদ্ধ নারী তাদের কোন অভিযানে মারা যায় নি

বাংলাদেশের ময়মনসিংহের পুলিশ বলছে, তারা একজন নারী মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছে।

দেশব্যাপী পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানের মধ্যেই এই প্রথম কোন নারী মাদক কারবারির মৃতদেহ পাওয়া গেলো।

পুলিশ তাকে রেহানা আক্তার নামে সনাক্ত করেছে।

ময়মনসিংহ সদরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিন বলছেন, "উনি সানকিপাড়ায় থাকতো। সেখান থেকে পাঁচ কিলোমিটার মতো দুরে গন্ডপাড়া এলাকায় একটা লাশ পাওয়া গেছে বলে সকালে আমরা খবর পাই।"

"সেখানে গিয়ে আমাদের দল দেখতে পায়, এক মহিলার গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে আছে। লাশ মর্গে পাঠানোর পর আমরা জানতে পারি উনার পরিচয়" - বলেন তিনি।

তিনি আরো জানিয়েছেন, "রেহানা এই এলাকার কুখ্যাত একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে বেশ কটি মামলা রয়েছে। তার পরিবারের বেশ কয়েকজন একই ব্যবসা করে। এবার যে অভিযান চলছে সেই অভিযানে তার বোনকে আমরা গ্রেফতার করেছি ।"

বাংলাদেশে চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে দেশব্যাপী এ পর্যন্ত প্রায় দেড়শ মাদকব্যবসায়ী বা বিক্রেতা মারা গেছে।

তার প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই পুলিশের ভাষ্য অনুযায়ী অভিযান চলাকালে কথিত বন্দুক যুদ্ধে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

খুব অল্প সময়ের মধ্যেই যে পরিমাণে মাদক ব্যবসায়ী মারা গেছেন সে নিয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপক অভিযোগ উঠেছে।

এমনকি জাতিসংঘের তরফ থেকেও উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

তবে এই প্রথম কোন নারী মাদক কারবারির মরদেহ পাওয়া গেলো।

রেহানা আক্তারের একজন ফুপাতো ভাই মোহাম্মদ হানিফ বলছেন তারা শুনেছেন রেহানা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো।

তিনি বলছেন, "আমরা শুনছি যে কালকে চারটার সময় নাকি তাকে অ্যরেস্ট করে নিয়ে গেছে। এইটাই শুনছি। পরে আজকে সকাল বেলা শুনি যে তারে নাকি মাইরা ফালাইছে। তবে উনি অনেক দিন যাবতই মাদক ব্যবসা করে। প্রায় চার-পাঁচ বছর এরকম হবে"

তবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিন বলছেন, রেহানা আক্তার নামে ওই নারী পুলিশের অভিযানে মারা যাননি।

ওদিকে রমজান মাসের আগে শুরু হওয়া পুলিশের নানা ইউনিটের মাদক বিরোধী অভিযানে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১৮ হাজারের মতো গ্রেফতার হয়েছে। এ পর্যন্ত মামলা হয়েছে ১১ হাজারের বেশি।

তবে কোন তালিকার ভিত্তিতে চলছে মাদক বিরোধী অভিযান? এসব ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে তথ্য জানা থাকলে তাদের এতদিন কেন গ্রেফতার করা হয়নি?

আর হঠাৎ কেন এত অভিযানে নেমেছে পুলিশ, এসব প্রশ্নের জবাব এখনো মেলেনি।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

পেনাল্টি মিসের পর মেসি-রোনাল্ডো বিতর্ক তুঙ্গে

উল্টো মোজা, মাঠে প্রস্রাব: ফুটবলারদের আজব বাতিক

দর্শক-দর্শনী দুটোই এখন ইউটিউব বিনোদনে

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর