ভারতে হোয়াটসঅ্যাপে গুজব ছড়ানোয় গণপিটুনিতে আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে

দাদারাও ভোসলে
ছবির ক্যাপশান,

গণপিটুনিতে নিহত হওয়া পাঁচজনের একজন দাদারাও ভোসলে

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলের রাজ্য মহারাষ্ট্রতে শিশু অপহরণকারী সন্দেহে গণপিটুনিতে মারা গেছে আরো পাঁচজন।

রবিবারের এই ঘটনায় ১২ জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে বিবিসি মারাঠি'কে জানায় পুলিশ।

নিহতরা একটি যাযাবর সম্প্রদায়ের নাগরিক ছিলেন এবং গ্রামের পাশ দিয়ে নিজেদের গন্তব্যের দিকে যাচ্ছিলেন।

কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন ধরণের চেষ্টার পরও ভারতের বিভিন্ন স্থানে শিশু অপহরণকারী সন্দেহে এভাবে গণপিটুনিতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটছেই।

ঐ গ্রামে সান্ধ্য আইন জারি করে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আরো পড়ুন:

ভিডিওর ক্যাপশান,

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও’র জেরে ভারতে হত্যাকাণ্ড

পুলিশ জানিয়েছে, যাযাবর সম্প্রদায়ের মানুষ সাধারণত ভিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমেই জীবনযাপন করেন এবং আক্রমণের শিকার হওয়ার সময়ও তারা গ্রামের মানুষের কাছে ভিক্ষা চাইছিল।

যাযাবরদের একজন গ্রামের একটি মেয়ের সাথে কথা বলছিল - এমন অভিযোগ ওঠার পর তাদের প্রশ্ন করতে শুরু করে গ্রামবোসীদের একটি দল।

একজন উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা বিবিসি'কে বলেন, "যাযাবরদের উত্তরে গ্রামবাসী সন্তুষ্ট হয়নি। তারা তাদের একটি ঘরে নিয়ে যায় এবং পাথর ও লাঠি দিয়ে মারতে থাকে।"

তিনি বলেন, শিশু অপহরণকারীর গুজব হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়ার পর তাদের গ্রামেও তা নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন তৈরি করে।

ঘটনাস্থলে পুলিশ আসার পর তারা পুলিশকেও আক্রমণ করে বলে জানান ঐ পুলিশ কর্মকর্তা।

হোয়াটসঅ্যাপের গুজবে মৃত্যু

এপ্রিল:

  • তামিলনাড়ুতে এক ব্যক্তি উদ্দেশ্যহীনভাবে রাস্তায় হাঁটাহাটি করায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

মে:

  • শিশুদের মিষ্টি দেয়ায় ৫৫ বছর বয়সী এক নারীকে পিটিয়ে মারা হয় তামিলনাড়ুতে। এই ঘটনায় ৩০ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
  • দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য অন্ধ্র প্রদেশে স্থানীয় তেলেগু ভাষায় কথা না বলে হিন্দিতে কথা বলায় একজন গণপিটুনির শিকার হয়ে মারা যান।
  • রাতে আমবাগানে ঢোকার কারণে তেলাঙ্গানায় একজনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।
  • তেলেঙ্গানার আরেক গ্রামে গণপিটুনিতে মারা যানএকজন যিনি আত্মীয়দের সাথে দেখা করতে ঐ গ্রামে গিয়েছিলেন।
  • দক্ষিণাঞ্চলের শহর বেঙ্গালুরুতে নতুন বসবাস করতে আসা এক ব্যক্তিকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে আঘাত করে হত্যা করা হয়।
  • হায়দ্রাবাদে পিটিয়ে মারা হয় একজন হিজড়াকে।

জুন:

  • উত্তর-পশ্চিম আসামে গাড়ি থামিয়ে রাস্তার খোঁজ চাইলে দুই ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারা হয়।
  • আহমেদাবাদে রাজস্থানের এক নারী ভিক্ষুক গণপিটুনিতে মারা যান।
  • ত্রিপুরায় আলাদা ঘটনায় জনরোষের শিকার হয়ে মারা যান দুইজন।
ছবির ক্যাপশান,

সামাজিক মাধ্যমের পাশাপাশি বানোয়াট খবরের শিকার হয়েছে প্রচলিত গণমাধ্যমও

কর্তৃপক্ষ কী করছে এবিষয়ে?

শিশু অপহরণের গুজব এরই মধ্যে মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পরেছে। স্থানীয় পুলিশ এবিষয়ে নাগরিকদের ওয়াকিবহাল করার চেষ্টা করছেন।

ভারতের বিভিন্ন স্থানে কর্তৃপক্ষ শিশু অপহরণ সংক্রান্ত বার্তা বিশ্বাস করা থেকে বিরত থাকতে বলেছে।

গতমাসে হায়দ্রাবাদের পুলিশ স্থানীয় লোকজনের সাথে পদযাত্রায় অংশ নেয়ে যেখানে তারা লাউডস্পিকারে 'গুজবে বিশ্বাস না করতে' অনুরোধ করেন এলাকাবাসীদের।

তামিলনাড়ুতে গুজব ছড়ানো বন্ধ করতে কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছে।

দক্ষিণাঞ্চলের শহর কর্ণাটকে পুলিশ সামাজিক মাধ্যম কন্ট্রোল রুম স্থাপন করেছে যেখান থেকে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট, ভিডিও ও মেসেজ পর্যবেক্ষণ করা হবে।

তেলেঙ্গানা শহরের পুলিশ মিথ্যা ভিডিও ছড়ানোর অপরাধে কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন: