বাংলাদেশের সাবেক ফুটবল কোচ ডালিয়া আক্তারের চোখে বিশ্বকাপ ২০১৮ ফাইনালে যাদের সম্ভাবনা বেশি

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল বেলজিয়াম
Image caption পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল বেলজিয়াম

বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার দ্বারপ্রান্তে এখন চারটি দেশ- ফ্রান্স, বেলজিয়াম, ইংল্যান্ড আর ক্রোয়েশিয়া।

কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়েকে হারিয়ে ফ্রান্স, ব্রাজিলকে হারিয়ে বেলজিয়াম, সুইডেনকে হারিয়ে ইংল্যান্ড আর স্বাগতিক রাশিয়াকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে ক্রোয়েশিয়া।

অথচ এর আগে বিশ্বকাপের মাঠে সুইডেনকে কখনোই হারাতে পারেনি ইংল্যান্ড। সেই ইতিহাসকে পাল্টে দিয়ে এবার ২-০ গোলে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড।

এভাবে দীর্ঘ ২৮ বছর পর বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে উঠলো তারা। এদিকে রাশিয়া-ক্রোয়েশিয়ার অপর রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে অতিরিক্ত সময়ের শেষ দিকে গোল করে ম্যাচ টাইব্রেকারে নিয়ে গিয়েছিলো রাশিয়া। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।

ফলে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে উঠে যায় ক্রোয়েশিয়া। এ অবস্থায় সেমি ফাইনালে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়া। অন্যদিকে বেলজিয়াম খেলবে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে। কারা উঠতে পারে এবারের ফাইনালে?।

বাংলাদেশের সাবেক ফুটবল কোচ ডালিয়া আক্তার বলছেন ইংল্যান্ড অঙ্ক কষেই বেলজিয়ামের সাথে খেলেছিল যাতে করে কোয়ার্টার ফাইনালে তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ পেতে পরে এবং সেটাই হয়েছে।

Image caption রাশিয়াকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ক্রোশিয়া

"না হলে কোয়ার্টারের ফাইনালে সুইডেনের বদলে ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলতে হতো। এখন তো সহজেই তারা সুইডেনকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে গেলো"।

তবে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচ নিয়ে অনুমান করা কঠিন কারণ দুটো দলই চমৎকার খেলেছে।

"সেমি ফাইনালে ডু অর ডাই অবস্থা হয়। তাই বলা যাচ্ছেনা যে ইংল্যান্ড বিপদের মুখে পড়তে যাচ্ছে কি-না।

ডালিয়া আক্তার বলেন দুটি দলেই তারকা আছে ও ভালো ফিনিশার ও মিডফিল্ড আছে।

আরো পড়তে পারেন:

নেইমার : পাকা অভিনেতা নাকি রেকর্ড ফাউলের শিকার

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের বিদায়ে বিপাকে টিভি চ্যানেল

"ক্রোয়েশিয়ার গোলকিপারকে একটু হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছে মনে হলো এবং এটা ঠিক না হলে ক্রোয়েশিয়াকে সেমিতে ভুগতে হতে পারে"।

ডালিয়া আক্তারের মতে বেলজিয়াম ও ফ্রান্সের খেলাটিও দারুণ জমজমাট হবে কারণ দু দলের কোচই তাদের সেরা কৌশল দিয়েই দলকে মাঠে পাঠাবেন।

সে কারণে সেমিফাইনালটি নব্বই মিনিটে শেষ নাও হতে পারে বলে মনে করছেন তিনি।

"এ ম্যাচটায় দু দলের জন্য ফিফটি ফিফটি চান্স থাকবে। খেলা ট্রাইবেকারে গড়ালেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবেনা"।

সম্পর্কিত বিষয়

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর