বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ফ্রান্স দল সম্পর্কে কিছু তথ্য

কিলিয়ান এমবাপে ছবির কপিরাইট Quality Sport Images
Image caption ফ্রান্স দলের ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে।

বিশ বছর আগে অর্থাৎ ১৯৯৮ সালে নিজেদের মাটিতে ফ্রান্স তাদের প্রথম বিশ্বকাপ জয়লাভ করেছিল।

সেবার ব্রাজিলকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতে ফ্রান্স।

কিন্তু দক্ষিন কোরিয়া এবং জাপানে অনুষ্ঠিত ২০০২ সালের বিশ্বকাপে ফ্রান্স দ্বিতীয় রাউন্ডেই উঠতে পারেনি।

তবে এনিয়ে তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে খেলবে ফ্রান্স। ১৯৯৮ সালে চ্যাম্পিয়ন হবার পর ২০০৬ সালেও ফাইনালে খেলেছিল ফ্রান্স।

ইউরোপিয় দেশগুলোর মধ্যে জার্মানি এ পর্যন্ত আটবার এবং ইটালি ছয়বার বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে খেলেছিল।

১৯৯৮ সাল থেকে ফ্রান্সের সমান অর্থাৎ তিনবার বিশ্বকাপ ফাইনালে অন্য কোন দেশ খেলতে পারেনি।

বিশ্বকাপ ফুটবলের আসলে ফ্রান্স এ পর্যন্ত তিনবার বেলজিয়ামকে পরাজিত করেছে।

মঙ্গলবার বেলজিয়ামের সাথে সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের দখলে বল ছিল ৬৪ শতাংশ।

ছবির কপিরাইট Anadolu Agency
Image caption ফ্রান্সের বিজয়ে সমর্থকদের উল্লাস।

কিন্তু ফ্রান্স পাল্টা আক্রমণের কৌশল নিয়ে বেলজিয়ামের রক্ষণভাগে চাপ তৈরি করেছিল।

খেলায় বেলজিয়ামের দখলে বেশি সময় বল থাকলেও গোল করার প্রচেষ্টা নিয়েছে ফ্রান্স ১৯বার এবং বেলজিয়াম নয় বার।

বিশ্বকাপ এবং ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের আসরে ফ্রান্স দলের সর্বশেষ ২০টি গোলের মধ্যে ১৩টি গোলে অবদান রেখেছেন অ্যান্টনিও গ্রিজম্যান।

এর মধ্যে তিনি নিজে গোল করেছেন নয়টি গোল এবং অন্যদের গোল করতে সহায়তা করেছেন চারটি।

বুধবার ক্রোয়েশিয়া এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচে বিজয়ী দলের সাথে ফাইনালে খেলবে ফ্রান্স।

ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ে দেশাম বলেছেন, ফাইনালে তাদের জিততেই হবে।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

ইউরোপীয় ফুটবলের সাফল্যে অভিবাসীদের ভূমিকা

এমবাপে: কীভাবে হলেন ফরাসী ফুটবলের নতুন সেনসেশন

ফ্রান্স বনাম বেলজিয়াম- কে কার মুখোমুখি?

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না
সেমিফাইনালের আগে ফ্রান্স ও বেলজিয়াম সমর্থকদের প্রস্তুতি