উগান্ডায় দুটি ভুয়া বিয়ে ও একটি বিশ্ববিদ্যালয় ডিগ্রি

ছবির কপিরাইট Image copyrightLULU JEMIMAH
Image caption অর্থ তুলতে নিজেকেই নিজে বিয়ে করলেন লুলু জেমিমাহ

উগান্ডার একজন রেডিও উপস্থাপিকা তার বন্ধুর সাথে বিয়ের একটি আয়োজন করতে যাচ্ছেন শুক্রবার।

তবে এখানে সত্যিকার অর্থে তার বিয়ে হচ্ছেনা।

অথচ এ অনুষ্ঠানে যেতেই অতিথির অর্থ দিতে হবে।

৩২ বছর বয়সী লুলু অবশ্য আলোচনায় এসেছেন সাদা পোশাক পড়ে 'নিজেই নিজেকে বিয়ে' করে।

কেন নিজেকে নিজের বিয়ে?

বিবিসিকে লুলু জেমিমাহ বলেন ২১/২২ বছর বয়স থেকেই লোকজন তাকে জিজ্ঞেস করতে শুরু করে কখন সে বিয়ে করবে?

"অথচ আমার জন্য বলতে গেলে আমি অন্য কিছু করতে চাই যেমন পড়ালেখা"।

তিনি বলেন তার মা প্রায়ই মেয়ের যেনো ভালো একটা জামাই হয় সেজন্য প্রার্থনা করতো আর তার বাবা মেয়ের বয়স ১৬ হতেই খসড়া লিখতে শুরু করে যা সে বিয়ের অনুষ্ঠান বলবে।

ছবির কপিরাইট @LULUJEMIMAH
Image caption টুইটারে নিজের বিয়ের বার্তা এভাবেই দিয়েছেন তিনি

এমনকি পরিবারের বাইরে থেকেও চাপ আসতে শুরু করে।

এসব কারণে মিস জেমিমাহ নিজেকেই নিজের বিয়ের ঘোষণা দিলেন।

আর এর মাধ্যমে তিনি আসলে বিয়ে বিষয়টি নিয়েই একটি বার্তা দিতে চেয়েছিলেন।

পাশাপাশি তার লক্ষ্য ছিলো বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে বার হাজার ডলার তোলা যা দিয়ে তিনি বৃত্তি না পেলেও বিদেশে পড়তে যেতে পারবেন।

ছবির কপিরাইট @THESQUAREPLACE
Image caption আমন্ত্রণ পত্র

দ্বিতীয় বিয়েটি কার ও কেন?

আরেক রেডিও উপস্থাপিকা সিমা কে কে সাবিতি আর তার বন্ধু বার্নার্ড মুকাসাও একটি বিয়ের আয়োজন করেন দুষ্টুমি করেই।

তবে তাদের উদ্দেশ্যটি ছিলো লুলু জেমিমাহকে সহায়তা করা।

কারণ অক্সফোর্ডে পড়ার জন্য জেমিমাহর অর্থের দরকার।

মিস সাবিতি বিবিসিকে বলেন, "আমি ইতিবাচক যে আমরা তার ডিগ্রি অর্জনে তাকে সহায়তা করতে পারবো"।

তিনি বলেন এখন অনেক তরুণীই সামাজিক চাপের কাছে নতি স্বীকার করেতে চায়না। তারা চায় আরও পড়ালেখা, ক্যারিয়ার বা ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত হতে।

"এটি ধীরে হলেও হচ্ছে আর মানুষও তা গ্রহণ করতে শুরু করেছে"।

আরো পড়ুন:

পুলিশের মাঝে জাঙ্গিয়া পরা ব্যক্তিটি আসলে কে?

খাসোগজি হত্যা ও মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতি

জর্জিয়ার নির্বাচনে ঝাল মরিচ খাওয়ার চ্যালেঞ্জ

সম্পর্কিত বিষয়