প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ড. কামাল হোসেনের ঐক্যফ্রন্টকে সংলাপের আমন্ত্রণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ড. কামাল হোসেন
Image caption ১লা নভেম্বর বৃহস্পতিবার ঐক্যফন্ট্রের নেতাদের গণভবনে সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশে নতুন গঠিত বিরোধী জোট ঐক্যফ্রন্টকে পহেলা নভেম্বর গণভবনে সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।

বিরোধী এই জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা মোস্তফা মোহসীন মন্টু বিবিসি'র কাদির কল্লোলকে জানিয়েছেন, সকাল ৮টার দিকে সংলাপের সময়সূচীর বিষয়ে প্রধানমনন্ত্রীর লেখা চিঠি ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেনের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মি. মন্টু আরো জানিয়েছেন, ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেনকে উদ্দেশ্য করে লেখা এই চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে স্বাক্ষর করেছেন।

চিঠিতে পহেলা নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় গণভবনে সংলাপের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

মোস্তফা মোহসীন মন্টু বলেছেন, ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে সংলাপে অংশ নিতে যাওয়া ঐক্যফন্ট্রের নেতাদের নামের তালিকা তৈরি করে সেই তালিকা আজই সরকারকে দেয়া হবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ সকাল ৮টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর চিঠি ড. কামাল হোসেনের বেইলি রোডের বাসায় গিয়ে হস্তান্তর করেন।

সেসময় মোস্তফা মোহসীন মন্টুসহ ঐক্যফ্রন্টের বেশ কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

গত রবিবার ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে একটি চিঠি দেয়া হয়।

পরদিনই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রীদের এক অনির্ধারিত বৈঠক থেকে সেই সংলাপের আহ্বানে সাড়া দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর পরপরই আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সংবাদ সম্মেলন করে তাদের সংলাপের আহবানে সাড়া দেয়ার কথা বলেন।

ঐক্যফ্রন্টের নেতারা এত দ্রুত সরকারের সাড়া পেয়ে বিস্মিত হলেও তারা বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়েছেন।

আরো পড়ুন:

নতুন রাজনৈতিক জোট যুক্তফ্রন্ট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাসি-ঠাট্টার জেরে কী বলছেন কামাল হোসেন

বিবিসি বাংলার সঙ্গে সাক্ষাৎকারে কী বলেছেন ড. কামাল

যে দুটি ইস্যুতে হোঁচট খেতে পারে সংলাপ

ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপে বসবে আওয়ামী লীগ