ভারতের শীর্ষ ধনী আম্বানির মেয়ের বিয়েতে যত জাঁকজমক

ছবির কপিরাইট Instagram/Beyonce
Image caption বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে বিয়োন্সে তার ছবি পোস্ট করেছেন ইনস্টাগ্রামে

ভারতের শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানির মেয়ের বিয়ে হচ্ছে আরেক ধনকুবেরের ছেলের সঙ্গে। সেই বিয়েতে হাজির পপ তারকা বিয়োন্সে থেকে শুরু করে হিলারি ক্লিন্টন। যেরকম জাঁক-জমকের সঙ্গে এই বিয়ের অনুষ্ঠান হচ্ছে তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে তুমুল মাতামাতি।

মুকেশ আম্বানির মেয়ে ইশা আম্বানি বিয়ে করছেন যাকে, সেই আনন্দ পিরামালের বাবাও আরেক ভারতীয় ধনকুবের অজয় পিরামাল। তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও খুব ঘনিষ্ঠ।

ভারতের সম্প্রতি আরও কয়েকটি জাঁকজমকপূর্ণ বিয়ে নিয়ে বেশ আলোচনা হয়েছে।

গত সপ্তাহেই ভারতে হয়ে গেল বলিউড তারকা প্রিয়াংকা চোপড়ার সঙ্গে মার্কিন পপ তারকা নিক জোনাসের বিয়ে।

সেই বিয়েতে আবার ইশা আম্বানি নিজেই কনের সহচরী হিসেবে হাজির ছিলেন।

ইশা আম্বানির বিয়ের আসল অনুষ্ঠান হবে বুধবার। কিন্তু গত শনিবার থেকেই বিয়ের উৎসব শুরু হয়ে গেছে।

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption হিলারি ক্লিনটনও যোগ দিয়েছেন বিয়ের অনুষ্ঠানে

ধারণা করা হচ্ছে এটি হবে ভারতের সবচেয়ে ব্যয়বহুল এবং চোখ ধাঁধানো বিয়ের অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে আরও যেসব খ্যাতিমান লোকজন যাচ্ছেন তাদের মধ্যে আছেন হাফিংটন পোস্টের আরিয়ানা হাফিংটন, ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকর এবং ব্যবসায়ী লক্ষ্মী মিত্তাল। বলিউডের নামকরা তারকারা তো আছেনই।

একশোটি চার্টার্ড ফ্লাইটে করে বিয়ের অতিথিদের নিয়ে আসা হয়েছে।

এই বিয়ের নানা রকম খবর সংগ্রহে এখন সোশ্যাল মিডিয়া ঘেঁটে বেড়াচ্ছেন সেলেব্রিটি ব্লগাররা এবং বিনোদন জগৎ ও লাইফস্টাইল ম্যাগাজিনের সাংবাদিকরা।

শাহরুখ খান এবং সালমান খানের মতো তারকারা বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচে যোগ দিচ্ছেন এরকম ভিডিও ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

রোববার বিয়োন্সে বিয়ের আগে এক অনুষ্ঠানে গান গেয়েছেন। সেই ছবি তিনি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন। তবে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য তাকে কত টাকা দিতে হচ্ছে, সেটি প্রকাশ করা হয়নি।

মুকেশ আম্বানি হচ্ছেন ভারতের রিলায়েন্স গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর। তার ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ৪ হাজার ৭ শ কোটি ডলার বলে মনে করা হয়। তিনি ভারতের সবচেয়ে ধনী শিল্পপতি এবং ব্যবসায়ী। আর বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের তালিকায় তার অবস্থান ১৯ নম্বরে।

আর বর আনন্দ পিরামালের বাবা অজয় পিরামালের সম্পদ প্রায় ৫৪০ কোটি ডলার। রিয়েল এস্টেট, ফার্মাসিউটিক্যালস এবং প্যাকেজিং শিল্পে তাদের বিনিয়োগ আছে।

আম্বানিরা থাকেন মুম্বাইতে তাদের ২৭ তলা ভবনে। এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে বিলাসবহুল বাড়ি বলে মনে করা হয়। ভবনটি নির্মাণে খরচ হয়েছে একশো কোটি ডলার। ভবনটির বিভিন্ন তলায় বাগান থেকে শুরু করে ছাদের ওপর আছে তিনটি হেলিপ্যাড।