২০১৮র সবচেয়ে সাড়া জাগানো পরিসংখ্যানের তালিকার শীর্ষে প্লাস্টিক বর্জ্যের পরিমাণ

প্লাস্টিক বোতল ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption এবছর বারবার সংবাদ শিরোনাম হয়েছে পরিবেশের ওপর প্লাস্টিক বর্জ্যের প্রভাব- - আর এই পরিসংখ্যানই ২০১৮র সবচেয়ে বড় পরিসংখ্যান

২০১৮ সালে গুরুত্বের নিরিখে তালিকাভুক্ত সবচেয়ে সাড়া জাগানো পরিসংখ্যান ছিল বিশ্বে প্লাস্টিক বর্জ্যের পরিমাণের হিসাব।

ব্রিটেনের রয়াল স্ট্যাটিসটিকাল সোসাইটি আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ঘটনার গুরুত্ব বিবেচনা করে এই পরিসংখ্যানের তালিকা তৈরি করেছে।

বিশ্বব্যাপী পরিবেশের ওপর প্লাস্টিক বর্জ্যের প্রভাব ২০১৮ সালে বারবার শিরোনাম হয়েছে।

তালিকাভুক্ত পরিসংখ্যানে প্লাস্টিক বর্জ্যের যে হিসাব দেখা যাচ্ছে সেই হিসাবে বলা হয়েছে কী পরিমাণ প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহারের জন্য প্রক্রিয়াজাত করা হয় নি। তাদের হিসাব অনুযায়ী বিশ্বে যত প্লাস্টিক ব্যবহার হয় তার ৯০.৫% বর্জ্যে পরিণত হয়।

যুক্তরাজ্যে ২০১৮ সালে সবচেয়ে সাড়া জাগানো পরিসংখ্যান ছিল সৌর জ্বালানির হিসাব। যুক্তরাজ্যে যে পরিমাণ বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়, তার ২৭.৮%-ই উৎপাদিত হয় সৌর শক্তিতে।

সৌর শক্তি যুক্তরাজ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদনের এক নম্বর উৎস। গ্যাস ও পারমাণবিক উৎসেরও ওপরে।

রয়াল স্ট্যাটিসটিকাল সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক হেতান শান জানাচ্ছেন বিচারকমণ্ডলীর একটি প্যানেল ২০০টি মনোনয়নের মধ্যে থেকে এই পরিসংখ্যান তালিকা চূড়ান্ত করেছে।

বিবিসি বাংলায় আরও পড়ুন:

যে কারণে প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহারে পিছিয়ে বাংলাদেশ

পলিথিন ব্যবহার কেন বন্ধ করবেন?

পৃথিবী দ্রুতই পরিণত হচ্ছে একটি 'প্লাস্টিকের তৈরি গ্রহে'

সামুদ্রিক প্রাণী কেন প্লাস্টিক খায়?

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption টিভি তারকা কাইলি জেনারের একটি মন্তব্যের সঙ্গে জড়িত একটি পরিসংখ্যান ২০১৮র সবচেয়ে সাড়া জাগানো পরিসংখ্যানগুলোর মধ্যে স্থান পেয়েছে।

পরিবেশ এবং প্লাস্টিক বর্জ্য ২০১৮ সালে বারবার শিরোনামে এসেছে। আর "সিঙ্গল ইউস" (একবার ব্যবহৃত) কথাটি যা প্লাস্টিক ব্যবহারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হয়ে গেছে সেটি নির্বাচিত হয়েছে ২০১৮-র সর্বাধিক ব্যবহৃত শব্দ হিসাবে।

অন্যান্য যেসব গুরুত্বপূর্ণ ও সাড়া জাগানো পরিসংখ্যান তালিকায় স্থান পেয়েছে:

  • ১.৩ বিলিয়ন ডলার: আমেরিকার জনপ্রিয় টিভি তারকা কাইলি জেনারের একটি টুইটের পর স্ন্যাপচ্যাটের শেয়ারের দাম ব্যাপকভাবে পড়ে যায়- একদিনের মধ্যে ১.৩ বিলিয়ন ডলার ব্যবসা পড়ে যায়। তার টুইট ছিল: ''আচ্ছা- আর কেউ কি আছেন যারা আর স্ন্যাপচ্যাট খুলছেন না? নাকি শুধু আমিই? কী দু:খের কথা।''
  • ৮৫.৯%: সময় মেনে চলা ব্রিটিশ ট্রেন সার্ভিসের আনুপাতিক হিসাব - এক দশকের বেশি সময়ের মধ্যে এটা সর্বনিম্ন রেকর্ড।
  • ৪০%: রুশ পুরুষের শতকরা হার যারা ৬৫ বছরে পা দেবার আগেই মারা যান।
  • ৬৪,৯৪৬: নভেম্বর ২০১৭ থেকে অক্টোবর ২০১৮ পর্যন্ত ইউরোপে হাম আক্রান্তের সংখ্যা
  • ৮২%: ব্রিটেনে অনলাইনে কেনা-বেচার বাইরে এখনও দোকানে বিপণনের শতকরা হার।
  • ৬.৪%: ফুটসি ২৫০ শেয়ারসূচক সংস্থাগুলোয় নারী নির্বাহী পরিচালকের শতকরা হার।

২০১৭ সালে রয়াল স্ট্যাটিসটিকাল সোসাইটি প্রথমবারের মত এই প্রতিযোগিতামূলক এই পরিসংখ্যান প্রকাশের উদ্যোগ নেয়। ভুয়া খবর আর সংখ্যার শক্তি তুলে ধরাই ছিল এই প্রতিযোগিতা আয়োজনের মূল লক্ষ্য।

বিবিসি বাংলায় আরও পড়তে পারেন:

'মুসলিমরা সপ্তাহে একদিন নামাজ পড়লেই শান্তি নষ্ট?'

নির্বাচনে ব্যালটের নিরাপত্তা যেভাবে নিশ্চিত করে ইসি

জাপানে চাকরির লোভে অর্থ লেনদেন না করতে পরামর্শ

সম্পর্কিত বিষয়